February 28, 2024, 6:44 pm

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
আধুনিক সমৃদ্ধ ওয়ার্ড গড়ার স্বপ্ন দেখেন কাউন্সিলর প্রার্থী ইফতু রংপুর মহানগরীতে বিএসটিআই এর মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনায় ১টি প্রতিষ্ঠানকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা পাইকগাছার দুর্নীতির মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্নসাতের ঘটনায় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ইউএনও”র কাছে অভিয়োগ আর এম পি ওয়েলফেয়ার সোসাইটির পাইকগাছা শাখার বার্ষিক সম্মেলন ও বনভোজন অনুষ্ঠিত তেঁতুলিয়ায় আশ্রয়ণ প্রকল্পে পারিবারিক পুষ্টি বাগানের উঠান বৈঠক র‌্যাব-১২’র অভিযানে ৫২ কেজি গাঁজাসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার, ট্রাক জব্দ নড়াইলে থানা পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ গ্রেফতার ১ ঝিনাইদহে ট্রেনের ধাক্কায় এক স্কুলছাত্র নিহত সকল প্রকার অপরাধ প্রবনতা কমাতে গ্রাম পুলিশদের যথাযথ দায়িত্ব পালন করতে হবে; ইউএনও মুহাম্মদ আল-আমিন পাইকগাছায় প্রতিবন্ধী ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা ; আটক- ১
রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী থাকলেন ৫৮ জন

রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী থাকলেন ৫৮ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী।। রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের যাচাই বাছাই সম্পন্ন হয়েছে। বাছাইয়ে একজন চেয়ারম্যান ও দুইজন সাধারণ সদস্য প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। ফলে মোট প্রার্থী থাকলেন ৫৮ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে তিনজন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৮ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩৭ জন।
সহকারি রিটানিং অফিসার শহীদুল ইসলাম বলেন, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল না করায় চেয়ারম্যান পদে বীর মুক্তিযোদ্ধ আনোয়ার ইকবালের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। ফলে চেয়ারম্যান প্রার্থী থাকলেন তিনজন। এছাড়াও ঋণ খেলাপির দায়ে ৫নং সাধারণ ওয়ার্ডের (দুর্গাপুর) দুইজন সদস্য প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এরা হলেন, মোহাম্মদ গোলাপ হোসেন ও রেজাইল করিম। ফলে এ ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য প্রার্থী থাকলেন চারজন।

বৈধ চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, পবা উপজেলার বড়গাছি এলাকার আফজাল হোসেন এবং গোদাগাড়ীর সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আক্তারুজ্জামান আক্তার।
সংরক্ষিত ১নং মহিলা ওয়ার্ডে (গোদাগাড়ী, তানোর, পবা, সিটি কর্পোরেশন) মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন চারজন। এরা হলেন, কৃষ্ণা দেবী, সাইদা ইয়াসমিন, রিতা বিবি ও শিউলী রানাী সাহা।

সংরক্ষিত ২নং ওয়ার্ডে (মোহনপুর, বাগমারা, দুর্গাপুর) সাতজন। এরা হলেন, পারভিন বিবি, সুলতানা পারভীন, ফিরোজা খাতুন, রাবিয়া খাতুন, লাল বানু, নারগীস বিবি ও নাছিমা বেগম।

সংরক্ষিতি ৩ নং ওয়ার্ডে (পুঠিয়া, চারঘাট, বাঘা) সাতজন। এরা হলেন, ফারজানা ইয়াসমিন সাথী, ময়না খাতুন, সাজেদা বেগম. মুনজুরা বেগম, জয় জয়ন্তী সরকার, মর্জিনা বেগম ও লিপি খাতুন।
সাধারণ সদস্যের ১নং ওয়ার্ডে (গোদাগাড়ী) তিনজন। এরা হলেন, বদিউজ্জামান, আব্দুর রশিদ ও শামসুজ্জোহা। ২নং ওয়ার্ডে (তানোর) পাঁচজন। এরা হলেন, শরিফুল ইসলাম, উজ্জল হোসেন, গোলাম মোস্তফা, মাইনুল ইসলাম ও মৃদুল কুমার ঘোষ।
৩নং ওয়ার্ডে (পবা-সিটি) পাঁচজন। এরা হলেন, তফিকুল ইসলাম, এমদাদুল হক, হাফিজুল রহমান, নফিকুল ইসলাম ও মাহাবুব আলম খান। ৪নং ওয়ার্ডে (মোহনপুর) একজন। তিনি হলেন, দীলিপ কুমার সরকার। তিনি বিনা প্রতিদন্দিতায় সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

অপরদিকে, ৫নং ওয়ার্ড (দুর্গাপুর) চারজন। এরা হলেন, আব্দুস সালাম, আবুল কালাম আজাদ, শাহাদত হোসেন ও শরিফুল ইসলাম।

৬নং ওয়ার্ড (বাগমারা) পাঁচজন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন, আবু জাফর মাস্টার, আব্দুর রশিদ, মাহমুদুর রহমান, বাবুল হোসেন ও শিরিনা পারভীন। ৭নং ওয়ার্ড (পুঠিয়া) ৫ জন। এরা হলেন, শরিফুল ইসলাম টিপু, ফজলে রাব্বি মুরাদ, মোহাম্মদ মাইনুল ইসলাম, আব্দুল আজিজ ও আসাদুজ্জামান মাসুদ।
৮নং ওয়ার্ড (চারঘাট) ৩ জন। এরা হলেন, আলহাজ্ব শফিউল আলম, জনাব আলী ও সাকের আলী। ৯নং ওয়ার্ড (বাঘা) ৬ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন, আফতাব হোসেন, আব্দুস ছালাম, আঃ মতিন, শাহীন আলম, হাফিজুর রহমান ও মহিদুল ইসলাম।
সহকারি রিটানিং অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার সংখ্যা ১১৮৫ জন। উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড সদস্য, পৌরসভার মেয়র ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলররা জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার। তাদের ভোটে রাজশাহীতে একজন চেয়ারম্যান ও ১২ জন সদস্য নির্বাচিত হবেন। এর মধ্যে তিনজন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য।
তিনি বলেন, তফসিল অনুযায়ী ১৭ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হবে। ১৮ সেপ্টেম্বর বাছাইয়ের পর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর। ২৬ তারিখ প্রতিক বরাদ্ধ দেয়া হবে। প্রতিক বরাদ্দের পর থেকে সকল প্রার্থী নির্বাচন কমিশনের নিয়মানুযায়ী প্রচার প্রচারনা করতে পারবেন।

মোঃ হায়দার আলী,
নিজস্ব প্রতিবেদক,
রাজশাহী।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD