সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে বারান্দায় শিশু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে স্ট্যাম্প উদ্ধারের মামলায় আদালত কর্তৃক ৯ বিবাদীদের কে শোকজ বানারীপাড়ায় শিক্ষক ও সুপারভাইজরদের ১২ দিন ব্যাপী বুনিয়াদী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ময়মনসিংহে শীতার্ত মানুষের মাঝে চিকিৎসক নেতা ডাঃ এম এ আজিজ এর কম্বল বিতরণ পাইকগাছায় গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার পাইকগাছা উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালিত বেপরোয়া বাস-বাড়ছে সড়ক দুর্ঘটনা: নামে বে-নামে কোটি কোটি টাকা চাঁদাবাজি আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে সুজানগরের প্রতিবন্ধীদের মাঝে সুদমুক্ত ঋণ বিতরণ সাভারের ইয়ারপুর ইউনিয়ন উপ-নির্বাচনে ১৩জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল: ২জন মাঠে সক্রিয়
পঞ্চগড়ে প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি, আটক তিন

পঞ্চগড়ে প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি, আটক তিন

মোঃ বাবুল হোসেন পঞ্চগড় :
পঞ্চগড়ে প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে দুই পরীক্ষার্থীসহ তিন জনকে আটক করেছে পুলিশ।
জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে মৌখিক পরীক্ষা দেওয়ার পর রাতে সেখান থেকে তাদের আটক করে পুলিশ।
আটককৃতরা হলেন, পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলা সদরের বড়দাপ এলাকার কলিম উদ্দীনের ছেলে মোকসেদুর রহমান (২৮), একই উপজেলার ছোটদাপ এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে আহসান হাবিব (২৮) এবং ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গি এলাকার বাবর আলীর ছেলে বেলাল উদ্দীন (৩৮)। এদের মধ্যে মকসেদুর ও আহসান হাবিব নিয়োগ পরীক্ষার্থী এবং বেলাল উদ্দীন নিয়োগ জালিয়াতি চক্রের অন্যতম হোতা বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।
পুলিশ ও জেলা প্রাথমিক নিয়োগ বোর্ড সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষার জন্য মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হয়। এর মধ্যে পরীক্ষার্থী মোকসেদুর রহমান ও আহসান হাবিবের মৌখিক পরীক্ষার খাতায় লেখার সাথে তাদের মৌখিক পরীক্ষার হাতের লেখার অমিল পাওয়া যায়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিয়োগের জন্য লিখিত পরীক্ষা প্রক্সির মাধ্যমে অন্যের দ্বারা দেওয়া হয়েছিল এবং এজন্য তারা মোটা অংকের টাকাও লেনদেন করেছেন বলে স্বীকার করেন। তাদের অন্য কাউকে দিয়ে লিখিত পরীক্ষা দেওয়া এবং আর্থিক লেনদেনের সাথে বালিয়া ডাঙ্গির বেলাল হোসেনও জড়িত। এরপর কৌশলে তাকেও ডেকে এনে তিন জনকে পুলিশের হাতে সোর্পদ করা হয়।
পঞ্চগড় জেলা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বোর্ডের চেয়ারম্যান ও জেলা প্রশাসক (ডিসি) জহুরুল ইসলাম বলেন, মৌখিক পরীক্ষা নেওয়ার সময় তাদের হাতের লেখা দেখে প্রাথমিকভাবে আমাদের সন্দেহ হয়। পরে কৌশলে জিজ্ঞাসাবাদে তারা অন্য কাউকে দিয়ে লিখিত পরীক্ষা দিয়েছিলেন এবং এজন্য তারা মোটা অংকের টাকা লেনদেন করেছেন বলেও স্বীকার করেন। এজন্য তাদের আটক করে রাখা হয়।
সকলের পরীক্ষা শেষে কৌশলে নিয়োগ পরীক্ষায় এমন জালিতির মুল হোতা বেলাল হোসেনকে ডেকে এনে তিন জনকেই পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়।
পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ মিঞা আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে দুই পরীক্ষার্থীসহ তিন জনকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে রাতে থানায় আনা হয়। তাদের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD