May 19, 2024, 11:38 am

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
সুজানগরে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ পদোন্নতি পেয়ে সিনিয়র সহকারী সচিব হলেন তেঁতুলিয়ার এসিল্যান্ড মাহবুবুল হাসান ঝিনাইদহে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আহত ২১ গোদাগাড়ীতে ডিজিটাল প্রিপেইড মিটার স্থাপন বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন উপজেলা চেয়ারম্যান ময়নাকে গণসংবর্ধনা আশুলিয়ায় সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা-কুপিয়ে এক যুবক আহত ও নারীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগ ঝড়-বৃষ্টি আঁধার রাতে, জনগণ আছে শেখ হাসিনার সাথে- প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার তেঁতুলিয়ায় পুরোনো ইট দিয়ে বাজার সেড নির্মাণ নড়াইলে বিলুপ্তির পথে বাবুই পাখির বাসা সাতক্ষীরার তালায় ট্রাক উল্টে ২ শ্রমিক নিহত আহত ১১
ময়মনসিংহ-১১ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়ে তুলতে চাই: এডভোকেট আব্দুল কাইয়ুম

ময়মনসিংহ-১১ আসনকে স্মার্ট আসন হিসেবে গড়ে তুলতে চাই: এডভোকেট আব্দুল কাইয়ুম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ময়মনসিংহ জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক, ভালুকা উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক ময়মনসিংহ জজ কোর্টের সরকারী আইন কর্মকর্তা (এপিপি) এডভোকেট মোঃ আব্দুল কাইয়ুম বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-১১ ভালুকা আসনে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন চাইবো। দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয়, তাহলে আমি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো।

ঙ্গলবার (৩১অক্টোবর) বিকালে ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতির সৈয়দ নজরুল ইসলাম ভবনে (নতুন ভবনে) তার পেশাগত কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এডভোকেট আব্দুল কাইয়ুম বলেন, ময়মনসিংহ-১১ আসনটি ঢাকার কাছাকাছি একটি শিল্প এলাকা। যেখানে রয়েছে অসংখ্য শিল্প কারখানা। ড্রেনেজ ব্যবস্থার কারণে কলকারখানার বিষাক্ত পানিয় ফসলের জমিতে প্রবাহিত হয়ে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন রোগবালাই সহ প্রতিটি ওয়ার্ডের মানুষ প্রতিনিয়ত জলাবদ্ধতা ও ড্রেনেজ সমস্যায় ও বনের মিথ্যা মামলায় হয়রানির শিকার হচ্ছ। আমার প্রথম কাজ হবে সর্বাধিক অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে এইসব সমস্যাগুলোর সমাধান করা এবং পৌর এলাকার সাথে সমন্বয় পূর্বক স্বল্পতম সময়ের মধ্যে টেকসই পরিবর্তন নিশ্চিত করা। প্রতিটি ওয়ার্ডে কমপক্ষে একটি কবরস্থান এবং একটি খেলার মাঠ থাকবে। বাসিন্দাদের আর সমাধির জন্য দূরে যেতে হবে না।

শিশুরা মানসম্মত শিক্ষা পাবে। বিশেষ মনিটরিং টুলস থাকবে যাতে স্কুলগুলো সর্বোত্তম ভাবে কাজ করার জন্য দায়বদ্ধ থাকে। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিদেশে পড়ার জন্য বিনামূল্যে পরামর্শ সেবা দেওয়া হবে।

বেকার সমস্যা সনাধানে একটি উপযুক্ত স্থানে একটি কারিগরি ইনস্টিটিউট স্থাপন করা হবে যেখানে যুবকরা কারিগরি প্রশিক্ষণ পাবে। শুধু তাই নয়, দেশে-বিদেশে তাদের কর্মসংস্থানের জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা করা হবে। প্রতিটি বড় বাজার এলাকায় বিনামূল্যে ইন্টারনেট হটস্পট থাকবে যাতে বাজারের ব্যবসায়ীরা তাদের উন্নতির জন্য প্রযুক্তির সর্বোত্তমভাবে ব্যবহার করতে পারে। ময়মনসিংহ-১১ এর সকল জনগণ অর্ধবার্ষিক বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্পেইন উপভোগ করবেন যেখানে এক্স-রে, চক্ষু, নাক কান গলা বিশেষজ্ঞ সহ মৌলিক ঔষুধ সুবিধা সহ অভিজ্ঞ ডাক্তার উপস্থিত থাকবেন। ভালুকার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভালো, মেধাবী কিন্তু দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পূর্ণ উপবৃত্তি প্রদান করা হবে। আমি অবশ্যই এটা নিশ্চিত করব।

এডভোকেট আব্দুল কাইয়ুম বলেন, আমি নিরলসভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থান ব্যবস্থায় কাজ করব যাতে একজন শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী চাকরি নিয়ে স্নাতক হয়। এটি তাদের সমাজে মূল্য সংযোজন করতে আরও অনুপ্রাণিত করবে।

আমাদের আসনে যানজটের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ। সড়ক সম্প্রসারণ প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে এই যানজট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নিরলসভাবে কাজ করে যাব। প্রতিটি বাড়িতে গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে। যেসব এলাকায় প্রাথমিকভাবে গ্যাসের আওতাভুক্ত করা হবে না সেসব এলাকায় এলপিজি পয়েন্ট থাকবে। যেখানে সম্ভাব্য সর্বনিম্ন বাজারদর থাকবে।

আমি তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ ও গাইড করার জন্য একটি অত্যাধুনিক যুব উদ্যোক্তা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার শপথ করছি। কেন্দ্র যুবকদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলবে। তারা পরে নিজেদের মতো করে ব্যবসা শুরু করবে। এমনকি স্টার্টআপের জন্য সীমিত আকারে তহবিল থাকবে।

তিনি বলেন আমার নেতা জাতীয় পার্টির প্রয়াত প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সর্বপ্রথম ইসলাম ধর্মকে রাষ্ট্রীয় ধর্ম হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। আমি আমার নেতার স্বপ্ন পুরণে
প্রতিটি মসজিদে শিশুদের মৌলিক ইসলামী শিক্ষা বিনামূল্যে প্রদান করা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে কমপক্ষে ১০টি কেন্দ্র (মসজিদ) থাকবে যেখানে এই সুবিধাটি প্রদান করা হবে।

তিনি বলেন- ভালুকা হবে মাদকমুক্ত। সন্ত্রাসের ভয় ছাড়াই মানুষ স্বাধীনভাবে চলাফেরা করবে। এই আসন জনগণ দ্বারা পরিচালিত হবে। যেখানে থাকবে না কোন সন্ত্রাস, মাদক ও চাঁদাবাজ।তিনি আরো বলেন, আমি জনগণের সেবক হতে চাই। নির্বাচিত হলে আমি আমাদের মমতাময়ী নেত্রী জাতীয় পার্টির প্রধানপৃষ্টপোষক ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ এমপির নেতৃত্বে তার পরামর্শে ময়মনসিংহ-১১ভালুকা কে সকল আসনের মধ্যে সেরা করার প্রয়াস নিয়ে এগিয়ে যাব ইনশাআল্লাহ।

এডভোকেট আব্দুল কাইয়ুম ছাত্রজীবন থেকেই জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে জড়িত। তিনি জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক,জাতীয় আইনজীবী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক, ২০২১-২০২২ সালে জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী কমিটির অডিটর ও ময়মনসিংহ জেলা জজ কোর্টের লিগ্যাল এইড এর প্যানেল এডভোকেট সহ বহু সামাজিক সংগঠনের দায়িত্ব পালন করছেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD