July 17, 2024, 10:06 am

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
নড়াইলের মধুমতি নদী থেকে গ*লিত ম*রদেহ উদ্ধার ৬ মিনিটেই মিলছে নির্ভুল জন্ম নিবন্ধন সনদ চারঘাটে গরুর লাম্পি স্কিন ডিজিজ রোগের প্রাদু*র্ভাব বানারীপাড়ায় বিশারকান্দিতে ৫০ বছর ধরে ভাসমান সবজি চাষে সফল চাষীরা আশুলিয়ায় তিতাস গ্যাসের ৫ শতাধিক বাসা বাড়ির অ*বৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন টুরিস্ট পুলিশ ঢাকা রিজিয়ন এবং টুর অপারেটর এসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ এর মত বিনিময় গোদাগাড়ীতে গবাদিপশুর ল্যাম্পি স্কিন ডিজিজ সম্পর্কে উঠান বৈঠক, মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালিত পাইকগাছায় বিপুল পরিমাণ কারেন্ট জাল জ*ব্দ পাইকগাছায় পানিতে ডু*বে শিশুর মৃ*ত্যু জাতীয় নৃত্য প্রতিযোগিতায় ঝালকাঠির মেয়ে সুকন্যার স্বর্ণপদক জয়
জয়পুরহাটে সন্তানকে হত্যার পর থানায় আত্মসমর্পণ করলেন মা মৌমিতা পাল

জয়পুরহাটে সন্তানকে হত্যার পর থানায় আত্মসমর্পণ করলেন মা মৌমিতা পাল

এস এম মিলন জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

জয়পুরহাট পৌর শহরের বারিধারা মহল্লায় সদর থানার সামনে (০৪) বছরের এক শিশু সন্তানকে চার্জার তার দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করেছে আপন মা মৌমিতা পাল৷

হত্যা নিশ্চিত করে থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছেন ঘাতক মা। আজ বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সকালে ৯ টায় এঘটনা ঘটে৷

নিহত ওই শিশুর নাম কণিনীকা (০৪) পিতা নয়ন কুমার পাল একজন ব্যাংক কর্মকর্তা। চাকুরির সুবাদে নয়নকুমার পাল জয়পুরহাটের বাড়িধারা এলাকায় সন্দীপের ভাড়া বাসায় থাকেন বলে জানা গেছে। সে জয়পুরহাট পাঁচবিবি উপজেলা সোনালী ব্যাংকে চাকরি করেন।

নিহত কণিকার বাবার স্থায়ী বাড়ি বগুড়ার নন্দীগ্রামে।
প্রতিবেশী ভারাটিয়ারা জানান গত কাল রাতে এক ঠাকুর এসেছিলো ওই ঘাতক মহিলা বার বার বলছেন এই সব আলোচনা করতে শুনি৷

জয়পুরহাট সদর থানার ডিউটি অফিসার রায়হান জানান সকালে ওই অভিযুক্ত পাষণ্ড মা নিজেই থানায় এসে বলেন আমাকে শাস্তি দেন আমি আমার বাচ্চাকে মেরে ফেলছি আপনারা আমাকে শাস্তি দেন এভাবেই বিস্তারিত জানান৷
বর্তমানে ওই শিশুটির মরহদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে৷

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, সন্তানকে হত্যা করে মৌমিতা পাল নিজেই থানায় হাজির হন। থানায় এসে তিনি জানান, পারিবারিক কলহের জেরে দীর্ঘদিন ধরেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত তিনি। মানসিক চাপ নিতে না পেরে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মোবাইল ফোনের চার্জার পেঁচিয়ে হিয়াকে হত্যা করেন। এ সময় হিয়ার বাবা অফিসে ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD