April 13, 2024, 3:43 am

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহ*ত ৩ পঞ্চগড়ে পরকীয়া প্রেমিকের হাতে গৃহবধূ খু*ন র‌্যাব-১২’র অভিযানে অপহরণকৃত মাদ্রাসা ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার ও ৫ জন আসামি গ্রেফতার বরিশাল বাসীকে পবিত্র ঈদ’র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন – আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্ পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর এর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- অ্যাডভোকেট জুয়েল দেশবাসীকে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর এর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন – আক্তার হোসেন মোল্লা বানারীপাড়া উপজেলা বাসীকে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- কিসলু বানারীপাড়া বাসীকে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- মাওলাদ হোসেন সানা নড়াইলে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহ*ত, আহত ১৫ উত্তরা ব্যাংক, মহিশালবাড়ী শাখার সাবেক ম্যানেজার আমিনুল ইসলাম হলেন এজিএম
বাবা আমি মরে গেলে ভালো হতো — শিশু নীলা

বাবা আমি মরে গেলে ভালো হতো — শিশু নীলা

আজিজুল ইসলামঃ বাবা আমি মরে গেলে ভালো হতো। জালা যন্ত্রনা হতোনা। ঘুমিয়ে থাকতাম নিশ্চিন্তে। জ্বালা যন্ত্রনা সইতে না পেরে থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত ৮ বছরের নীলা যখন তার বাবাকে জড়িয়ে ধরে এ কথা গুলো বলছিলো তখন তার মা রত্না খাতুন আর চোখের পানি ধরে রাখতে পারেনি। কান্নায় ভেঙে পড়েছিলো তারা দুজনেই। তারা বড়ই অসহায়। কান্না ছাড়া আর কিছুই করার নেই তাদের। চোখের সামনে মেয়েটি মরতে বসেছে তবুও কিছু করার নেই। তারা যে এখন নিঃশ্ব।

যশোরের শার্শা উপজেলার রুদ্রপুর গ্রামের আসাদুজ্জামান এর একমাত্র মেয়ে নীলা। আড়াই মাস বয়স থেকে সে থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত হয়। সেই থেকে দীর্ঘ ৮ বছর ধরে তার শরীরে রক্ত দিয়ে আসছে তার বাবা। এখন জটিল আকার ধারন করেছে। নীলার পেট ফুলে পড়েছে। চিকিৎসক বলছেন এখনই অপারেশন করানো লাগবে। এজন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। এতো টাকা কোথায় পাবে আসাদুল? তাই মাথায় যেনো আকাশ ভেঙে পড়েছে। নীলা দিন দিন অসুস্থ হয়ে পড়ছে। পেটে জ্বালা যন্ত্রণা বেড়ে গেছে। খাওয়া নেই। ঘুম নেই। খেলতে পারছেনা। স্কুলেও যেতে পারছেনা। তাই অস্থির অবুজ শিশুটি মা বাবাকে জড়িয়ে ধরে বলছে, মা” আমি মরে গেলেই ভালো হতো। ঘুমিয়ে থাকতাম নিশ্চিন্তে। যেখানে জ্বালা যন্ত্রণা বেঁচে থাকার আকুতি কিছুই থাকতো না। নীলাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন সকলে। বাবা মায়ের একমাত্র মেয়ে নিলা বাঁচতে চায়।

নিলার বাবার বিকাশ নং- 01784-554291

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD