মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি : 🔊
🇧🇩 বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম: 🇧🇩
চরকাজলে স্বপ্না হত্যার রেশ না কাটতেই ফের ১০ বছরের শিশু ধর্ষন দল-মত নির্বিশেষে সকল প্রকৌশলীর সহযোগিতা কামনা করলেন সুব্রত দাশ রাজধানী যাত্রাবাড়ী থেকে ২০ কেজি গাঁজা ও পিকআপসহ দুইজন গ্রেফতার আশুলিয়ায় মহাশ্মশান ঘাটে ৫দিন ব্যাপী শান্তিপূর্ণভাবে কীর্তন অনুষ্ঠিত পুঠিয়ার বানেশ্বরে কাপড় ব্যবসায়ীর উপর হামলা দোকানপাট বন্ধ রেখে প্রতিবাদ মুন্সীগঞ্জ আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিএনপি ৯ আ”লীগ ৫ ও স্বতন্ত্র ১ পদে বিজয়ী আগৈলঝাড়ায় বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের উদ্যোগে পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচী উদ্বুদ্ধকরণ অনুষ্ঠিত বিএনপি নেতা শিমুল বিশ্বাস ও সালাউদ্দিন টুকুর জামিন মানুষের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল গোপালগঞ্জ অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার
রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জনসহ ৬২ জনের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ

রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জনসহ ৬২ জনের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ

মোঃ হায়দার আলী রাজশাহী থেকে : সারাদেশের মত রাজশাহীতে বিএনপিসহ অন্য রাজনৈতিক দলগুলো মাঠে না থাকা, দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে অংশ গ্রহন না করায় আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নের আশায় রীতিমতো মুখিয়ে ছিলেন প্রার্থীরা। ফাঁকা মাঠে গোল দিতেই প্রার্থীর এতটা ছড়াছড়ি। এছাড়া এই নির্বাচনে যারা ভোটার, স্থানীয় সরকারের সেই জনপ্রতিনিধিদের বেশির ভাগই আওয়ামী লীগের নেতা কর্মী সমর্থক। ফলে ‘দলীয় সমর্থন পেলেই বিজয় নিশ্চিত’ এমনটা ধরেই প্রস্তুতি নিচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। সব মিলিয়ে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন না হলেও দলের সমর্থনই মুখ্য হয়ে উঠেছে। কেউ কাউকে ছাড় দিতে চাই না, একজন অন্য জনকে সাইজ করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। নেতা কর্মী সমর্থকদের নিয়ে প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন।

রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনজনসহ ৬২ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এর মধ্যে নয়টি সাধারণ সদস্য পদে ৪০ জন ও তিনটি সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৯ জন। সোমবার পর্যন্ত জেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে তারা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।
চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, জেলা পরিষদের বর্তমান প্রশাসক ও আওয়ামী লীগের প্রবীন নেতা মোহাম্মদ আলী সরকার এবং পবা উপজেলার বড়গাছি এলাকার আফজাল হোসেন।

এদের মধ্যে মোহাম্মদ আলী সরকার দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে মনোনয়ন তুলেছেন। বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে তিনি নির্বাচন করবেন। গত বারও দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেন। তিনি ভোট পেয়েছিলেন ৭৪২ এবং আওয়ামী লীগ মনোনিত তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী মরহুম মাহবুব জামান ভুলু ভোট পেয়েছিলেন ৪১৫।

রাজশাহীর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলী সরকার বর্তমানে জেলা পরিষদের প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি নগরীর ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য। এছাড়াও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের আগের কমিটির সদস্য ছিলেন তিনি।
গত শনিবার জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। এতে রাজশাহীতে দলীয় মনোনয়ন পান প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা ও মহানগরের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল। তিনিসহ এবার ১০ জন আওয়ামী লীগ নেতা দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদন করেছিলেন।

মীর ইকবাল নিজেও বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদ পরিবারের সন্তান। দলের জাতীয় পরিষদের এই সদস্য ১৬ বছর রাজশাহী নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও ২০০৪ সাল থেকে তিনি সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
জেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারি রিটানিং অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, সোমবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত চেয়ারম্যান পদে তিনজন, নয়টি সাধারণ সদস্য পদে ৪০ জন এবং তিনটি সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৯ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। আগামী বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর বিকেল ৩টার মধ্যে তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করতে হবে।

তিনি জানান, মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারিদের মধ্যে সংরক্ষিত নারী সদস্যের ১ নং ওয়ার্ডে (গোদাগাড়ী, তানোর, পবা, সিটি করপোরেশন) চারজন, ২ নং ওয়ার্ডে (মোহনপুর, বাগমারা, দুর্গাপুর) সাতজন এবং ৩ নং ওয়ার্ডে (পুঠিয়া, চারঘাট, বাঘা) আটজন।
অপরদিকে, সাধারণ সদস্যের ১নং ওয়ার্ডে (গোদাগাড়ী) তিনজন, ২নং ওয়ার্ডে (তানোর) তিনজন, ৩নং ওয়ার্ডে (পবা-সিটি) পাঁচজন, ৪নং ওয়ার্ডে (মোহনপুর) তিনজন, ৫নং ওয়ার্ড (দুর্গাপুর) আটজন, ৬নং ওয়ার্ড (বাগমারা) পাঁচজন, ৭নং ওয়ার্ড (পুঠিয়া) পাঁচজন, ৮নং ওয়ার্ড (চারঘাট) দুইজন ও ৯নং ওয়ার্ড (বাঘা) ছয়জন।

শহিদুল ইসলাম জানান, রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার সংখ্যা ১১৮৫ জন। উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড সদস্য, পৌরসভার মেয়র ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলররা জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার। তাদের ভোটে রাজশাহীতে একজন চেয়ারম্যান ও ১২ জন সদস্য নির্বাচিত হবেন। এর মধ্যে তিনজন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য।
গত ২৩ আগস্ট নির্বাচন কমিশন রাজশাহীসহ ৬১ জেলা পরিষদ ভোটের তফসিল ঘোষণা করেন। তফসিল অনুযায়ী ১৭ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ১৮ সেপ্টেম্বর বাছাইয়ের পর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর।

মোঃ হায়দার আলী,
নিজস্ব প্রতিবেদক,
রাজশাহী।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD