বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:২৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
সব ধর্মের পারস্পরিক সম্প্রীতি আরো সুদৃঢ় করতে শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় বসাতে হবে- প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ মধুপুরে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে ডিআইজি ও পুলিশ সুপারের পাঠানো উপহার সামগ্রী বিতরণ হাতীবান্ধায় অটো ও ১০কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার এক জাতীয় কন্যাশিশু দিবসে আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মুন্সীগঞ্জে দুর্গাপূজায় কারা পেল সেরা পুরস্কার কেন্দুয়ায় রবিদাস সম্প্রদায়ের মাঝে শাড়ি, লুঙ্গি বিতরণ ক্ষেতলাল উপজেলার বড়তারা ইউনিয়ন পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন আজিজুল হক ও রায়হান আলম মুলাদিতে নুতন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার যোগদান। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে সব ধর্মাবলম্বীরা নিরাপদে ধর্মীয় কার্যক্রম করতে পারে- গৌরীপুরে সোমনাথ সাহা। বিভিন্ন জেলার পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি
ক্ষেতলালে গরীব কৃষক মিলন’র করলা ও বেগুন গাছ রাতের আঁধারে কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা

ক্ষেতলালে গরীব কৃষক মিলন’র করলা ও বেগুন গাছ রাতের আঁধারে কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা

এস এম মিলন জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

৬ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) ভোররাতে উপজেলার দেউলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে

স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী কৃষক মিলন মিয়ার নিজস্ব কোনো জমি নেই তিনি অন্যের জমি বর্গা নিয়ে চাষ করেন। এবারও চলতি মৌসুমে তিনি তার বর্গা নেয়া (৩৩ শতাংশ) জমির উপর করলা ও বেগুন চাষ করেন। গতকাল মঙ্গলবার ভোররাতে তার রোপনকৃত ওই (৩৩ শতাংশ) জমির সমস্ত করলা ও বেগুন গাছ কেটে দিয়েছেন দূর্বৃত্তরা।
সরেজমিনে গিয়ে অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে।

স্থানীয়রা বলেন, মিলন মিয়া একজন সৎ গরীব কৃষক সে অন্যের জমি বর্গা নিয়ে দিনরাত পরিশ্রম করে (৩৩ শতাংশ) চাষআবাদ করছেন। তার রোপণ কৃত জমির করলা ও বেগুন গাছ কেটে একটা অমানবিক কাজ করেছে। আমরা এই ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে সঠিক বিচার দাবি করতেছি।

এ বিষয়ে কৃষক মিলন মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি আজ সকালে জমি দেখার জন্য জমিতে যাই। যায়ে দেখি আমার জমিতে রোপণকৃত সমস্ত করলা ও বেগুন গাছ কাটা। কে বা কাহারা কেটেছে আমি বলতে পারি না, আমি অন্যের জমি বর্গা নিয়ে খুব কষ্ট করে চাষআবাদ করি। এবং আমার দুই মেয়ে একটা মেয়ে একটু বড়ো ঐ বড়ো মেয়ে আমাকে ফসল রোপণ করতে সহযোগিতা করেছেন মেয়েটি খুব কষ্ট পেয়েছে শুধু কান্না করছেন। এই ক্ষতিতে আমি মানসিকভাবে ভেঙ্গে পরেছি, এই ফসল কর্তনে প্রায় ৮০ -৯০ হাজার টাকা ক্ষতি হয়েছে। যদি উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আমাকে একটু আর্থিক সহযোগিতা করতেন তাহলে হয়তো আমি উপকৃত হবো।
এবিষয়ে স্থানীয় বড়াইল ইউনিয়নের সাবেক ৬নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য কেরামত আলী বলেন। আমার দেখাতে কৃষক মিলন মিয়া একজন সৎ গরীব কৃষক সে দিনরাত পরিশ্রম করে অন্যার জমি বর্গা নিয়ে চাষআবাদ করছেন। এই ধরনের জঘন্য ঘৃণিত কাজটা কে বা কাহারা কেটেছে কেউ দেখতে পাইনি তবে যে কেউ করুক কাজটা করা উচিৎ হয়নি আমি একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে এর তিব্র প্রতিবাদ জানাই।

এ বিষয়ে ক্ষেতলাল উপজেলা কৃষি অফিসার জাহিদুর রহমান বলেন। আসলে এইধরনের কাজ খুব জঘন্য ঘৃণিত কাজ। যদিও রাতের আঁধারে করেছেন কে করেছে সেটা কেউ বলতে পারে না। আমরা উপজেলা কৃষি অফিস থেকে ঐ ভুক্তভোগী কৃষক মিলন মিয়াকে সার্বিক সহযোগিতা করবো।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD