February 27, 2024, 12:30 pm

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
স্বাধীন ও সার্বভৌম প্রজাতন্ত্রে জনগণের বন্ধু পুলিশ ও সাংবাদিকের দায়িত্ব কি?-বাকিটা ইতিহাস গোদাগাড়ীতে হেরোইনসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার ভিজিডির তালিকায় নাম একজনের, চাল খায় আরেকজন পাইকগাছা প্রেসক্লাবে পাল্টা পাল্টি সংবাদ সম্মেলন পাইকগাছায় স্বাভাবিক প্রসব সেবায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে কপিলমুনি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র বেড়িবাঁধ নির্মাণ; জলাবদ্ধতার আশংকা নড়াইলের আদালত থেকে শর্তে জামিন পেলেন সেই প্রধান শিক্ষক এস এম মুরাদুজ্জামান সুন্দরগঞ্জে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উদযাপন বেতাগীতে স্থানীয় সরকার দিবসে শোভা যাত্রা, আলোচনা ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান নড়াইলে গাঁজাসহ একজন গ্রেফতার
মধুপুরে শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোন ব্যবহার ও প্রাইভেট পড়ানো নিষিদ্ধ

মধুপুরে শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোন ব্যবহার ও প্রাইভেট পড়ানো নিষিদ্ধ

আঃ হামিদ মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার মহিষমারা কলেজের শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোন ব্যবহার ও প্রাইভেট পড়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে শিক্ষার মানোন্নয়ন কল্পে আয়োজিত অভিভাক সমাবেশে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সম্মতির ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন মহিষমারা কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক। প্রধান অতিথি ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার (মধুপুর সার্কেল) শাহিনা আক্তার। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহিষমারা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মো. ছানোয়ার হোসেন, অভিভাকব মো. মাজেদ আলীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিবৃন্দ।
কলেজের প্রতিষ্ঠাতা মো. ছানোয়ার হোসেন বলেন, মধুপুরের শিক্ষার্থীরা মোবাইলে পড়ার কথা বলে অভিভাবকদের ফাঁকি দিচ্ছে। পড়া লেখার পরিবর্তে বিনোদনে যুক্ত থাকছে। অনেকে বিপথগামী হচ্ছে। এই পরিস্থিতি থেকে যুবসমাজ তথা কলেজের শিক্ষার্থীদের ফিরিয়ে আনার জন্য কলেজ শিক্ষক ও অভিভাবকদের সাথে আলোচনা করে মোবাইল ব্যবহার ও কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রাইভেট পড়া নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই বিষয়টি কার্যকর করার জন্য অভিভাক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে শিক্ষার মানোন্নয়নকল্পে অভিভাবক সমাবেশের আয়োজন করা হয়। কলেজ কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তকে সকলেই সাধুবাদ জানান এবং সার্বিক সহযোগিতার প্রতিশ্রতি দেন।
ওই সভায় ছানোয়ার হোসেন শিক্ষার্থীদেরকে অবসর সময়ে পিতা-মাতার কাজে অংশ নেওয়ার পরামর্শ দেন। যাতে করে শিক্ষার্থীদের অবসরটা কল্যাণকর কাজে ব্যবহৃত হয় এবং পরিবার সমাজ উপকৃত হয়।
এদিকে অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, কলেজের শ্রেণিকক্ষে এবং প্রাইভেটে একই বই থেকে একই পড়া একই শিক্ষা শিক্ষার্থীদের পড়িয়ে থাকেন। তাহলে আবার প্রাইভেট কেন? না বুঝলে শিক্ষকদের নিকট থেকে বুঝে নেওয়া শিক্ষার্থীদের দায়িত্ব। শিক্ষকদেরও বুঝিয়ে দেওয়া কর্তব্য। ক্লাশে মনোযোগি হলে প্রাইভেটের কোনো প্রয়োজন নেই। তাই আমরাও একমত হয়েছি প্রাইভেট না পড়িয়ে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার দিকে মনোযোগি করার চেষ্টা চালাবো।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD