মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি : 🔊
🇧🇩 বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম: 🇧🇩
চরকাজলে স্বপ্না হত্যার রেশ না কাটতেই ফের ১০ বছরের শিশু ধর্ষন দল-মত নির্বিশেষে সকল প্রকৌশলীর সহযোগিতা কামনা করলেন সুব্রত দাশ রাজধানী যাত্রাবাড়ী থেকে ২০ কেজি গাঁজা ও পিকআপসহ দুইজন গ্রেফতার আশুলিয়ায় মহাশ্মশান ঘাটে ৫দিন ব্যাপী শান্তিপূর্ণভাবে কীর্তন অনুষ্ঠিত পুঠিয়ার বানেশ্বরে কাপড় ব্যবসায়ীর উপর হামলা দোকানপাট বন্ধ রেখে প্রতিবাদ মুন্সীগঞ্জ আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিএনপি ৯ আ”লীগ ৫ ও স্বতন্ত্র ১ পদে বিজয়ী আগৈলঝাড়ায় বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের উদ্যোগে পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচী উদ্বুদ্ধকরণ অনুষ্ঠিত বিএনপি নেতা শিমুল বিশ্বাস ও সালাউদ্দিন টুকুর জামিন মানুষের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল গোপালগঞ্জ অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার
ময়মনসিংহে প্রান্তিক জনগোষ্ঠির মাঝে ওএমএস ও খাদ‍্যবান্ধব চাল-আটা বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন

ময়মনসিংহে প্রান্তিক জনগোষ্ঠির মাঝে ওএমএস ও খাদ‍্যবান্ধব চাল-আটা বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন

আরিফ রববানী ময়মনসিংহ।

ময়মনসিংহে প্রান্তিক জনগোষ্ঠির মাঝে ওএমএস ও খাদ‍্যবান্ধব চাল-আটা বিতরণ করা হয়েছে। জেলায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠির খাদ‍্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন‍্য সরকারের এই উদ্যোগ বাস্তবায়নে ময়মনসিংহে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেছেন বিভাগীয় কমিশনার মো. শফিকুর রেজা বিশ্বাস।

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সারাদেশে ওএমএস, টিসিবি ও খাদ‍্য বান্ধব কর্মসূচির অংশ হিসাবে প্রতি কেজি চাল ৩০ টাকা ও প্রতি কেজি আটা ১৮ টাকায় বিক্রির করা হবে। বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এই কর্মসূচি আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে বলে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।

জেলায় ভূর্তকি মূল‍্যে জেলার ১৪৫ ইউনিয়নে ২ লাখ ৯৮ হাজার ৪৮ পরিবারের খাদ‍্যবান্ধব কর্মসূচির চাল (১৫ টাকা প্রতি কেজি ) দরে ৮৯৪২ মে.টন চাল বিক্রি করা হবে বলেও জানান বিভাগীয় কমিশনার।তিনি আরও জানান, আগে খাদ‍্যবান্ধবের চাল ১০টা দরে বিক্রি হলেও সম্প্রসারিত এই কর্মসূচির চাউল এখন থেকে ১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হবে।

উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- খাদ‍্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব রায়না আহম্মদ, আঞ্চলিক খাদ‍্য কর্মকর্তা মো.আমিনুল এহসান, জেলা খাদ‍্য নিয়ন্ত্রক ইকবাল বাহার চৌধুরী প্রমূখ। সংবাদ সম্মেলন শেষে নগরীর বাতির কল এলাকায় বিতরন কর্মসূচীর উদ্ধোধন করা হয়। এসময় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে-ইতোমধ্যে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ভোক্তাদের ডিজিটাল ডাটাবেজে ভোক্তা তথা উপকারভোগীদের তথ্য আপলোড করা হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক উক্ত ডাটাবেজে যাচাইকৃত যেসকল উপকারভোগীর তথ্য সঠিক পাওয়া যাবে তারা চাল ক্রয় করতে পারবেন এবং মেসকল উপকারভোগীর তথ্য ভুল পাওয়া গেছে ও বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বাদ পড়েছেন তারা চাল ক্রয় করতে পারবেন না। এছাড়া ডিজিটাল ডাটাবেজে আপলোডকৃত যেসকল উপকারভোগীর তথ্য এখনও যাচাই করা সম্ভব হয়নি, তারা যাচাই সাপেক্ষে চাল ক্রয় করতে পারবেন।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে জনসাধারণকে মূল্য সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে এবং চাল ও আটার বাজার মূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখার নিমিত্ত ১ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রি. তারিখ হতে দেশব্যাপী ওএমএস কার্যক্রম সম্প্রসারণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে জানা গেছে। ইতঃপূর্বে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনে মঞ্জুরিকৃত ১৭টি দোকানে দৈনিক ১ মে. টন করে ১৭ মে. টন চাল এবং দোকান প্রতি দৈনিক ৫০০ কেজি করে ৮.৫০০ মে.টন আটা বিক্রয় করা হচ্ছিল। ওএমএস কার্যক্রম সাম্প্রসারণের ফলে আজ হতে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনে ১৭টি দোকানের প্রতিটিতে দৈনিক ০২ মে.টন করে মোট ৩৪ মে.টন চাল ও ৫০০ কেজি করে মোট ৮.৫০০ মে. টন আটা বিক্রয় করতে পারবেন। এছাড়া ময়নসিংহ সিটি কর্পোরেশনে এটি ট্রাকের মাধ্যমে প্রতিটিতে দৈনিক ২ মে. টন করে মোট ১৪ মে.টন চাল বিক্রয় করতে পারবেন। ময়মনসিংহ জেলা সদর বহির্ভূত ২টি উপজেলা ও ১০টি পৌরসভায় ৪২টি দোকানে দৈনিক ২ মে.টন করে মোট ৮৪ মে.টন চাল বিক্রয় করতে পারবেন।

সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন যে, টিসিবি কার্ডধারীগণ ওএমএস এর ন্যায় ন্যায্য মূল্যে মাসে ১০ কেজি চাল পাবেন। এ প্রেক্ষিতে ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রি. তারিখ হতে পরিচালিত ওএমএস কার্যক্রমে টিসিবি’র কার্ডধারীগণকে প্রতি পাক্ষিকে ০৫ কেজি করে মাসে দুই বারে ১০ কেজি চাল দেওয়া হবে। টিসিবি’র কার্ডধারীগণকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে চাল প্রদান করা হবে এবং তাদের জন্য ওএমএস কার্যক্রমে পৃথক লাইনের ব্যবস্থা করা হবে। সাধারণ ক্রেতাগণ জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি জমা দিয়ে এবং টিসিবি’র কার্ডধারীগণ কার্ড প্রদর্শনের মাধ্যমে চাল ক্রয় করতে পারবেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD