শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
পঞ্চগড়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে এক কৃষকের মৃত্যু শাহীনুজ্জামানের হাত ধরে সুজানগরে বিএনপির ৪ শতাধিক নেতাকর্মীর আ.লীগে যোগদান মধ্যরাত থেকে ইলিশ শিকার নিষিদ্ধ, জেলে পল্লীতে হাহাকার পাইকগাছায় জাতীয় জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন দিবসের আলোচনা সভা পাইকগাছায় বিদ্যুতায়িত হয়ে দোকানদারের মৃত্যু নওগাঁর আত্রাইয়ে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা সুজানগর পৌরসভার উদ্যোগে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালিত জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনে জেলার সেরা সুজানগর পৌরসভা স্বরূপকাঠির সম্ভাবনাময় জাহাজ শিল্প পাইকগাছায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক প্রদত্ত মানবিক সহায়তা চেক বিতরণ
জেলা বিএনপির সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ ঝিনাইদহে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর বর্বোরোচিত হামলায় আহত ১২০

জেলা বিএনপির সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ ঝিনাইদহে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর বর্বোরোচিত হামলায় আহত ১২০

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর দেশীয় অস্ত্র, লাঠি, রামদা, হকিস্টিক ও হাতুড়ি দিয়ে বর্বোরোচিতভাবে হামলা করা হয়েছে। ভাংচুর ও লুট করা হয়েছে বিএনপি নেতাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং বাড়ি ঘর। হামলায় ১২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এরমধ্যে ২৭ জন গুরুতর আহত হয়ে ঝিনাইদহ, কালীগঞ্জ, শৈলকুপা, ঢাকা ও যশোর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। মঙ্গলবার বিএনপির সমাবেশে আসা যাওয়ার পথে আ’লীগ এই হামলা চালায়। বুধবার দুপুরে এইচএসএস সড়কস্থ ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির কার্যালয়ে জনাকীর্ণ এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করে বিএনপি। জেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাড এম এ মজিদ লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এ সময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহিদুজ্জামান মনা, বিএনপি নেতা মুন্সি কামাল আজাদ পাননু, সাজেদুর রহমান পাপপু, আব্দুল মজিদ বিশ^াস, আলামগীর হোসেন আলম, শাহজাহান আলী, আবু বক্কার সিদ্দিক, মহিলাদল নেত্রী অধ্যক্ষ কামরুজ্জামান লিজি, তহুরা বেগম, আশরাফুল ইসলাম পিন্টু, মিজানুর রহমান সুজনসহ জেলা, উপজেলা ও পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে মঙ্গলবার ঝিনাইদহ শহরের উজির আলী হাইস্কুল মাঠে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এই সমাবেশে যোগদানের উদ্দেশ্যে সদর উপজেলার ১৭টি ইউনিয়ন ও জেলার ৬টি উপজেলা থেকে বিএনপি’র নেতাকর্মীরা আসতে শুরু করে। তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা যাতে এই সমাবেশে অংশগ্রহণ করতে না পারে সে জন্য এই ফ্যাসিষ্ট সরকারের সন্ত্রাসীরা পুলিশের সামনেই বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে নিরীহ নেতাকমীদের উপর বর্বোরোচিতভাবে হামলা চালায়। হামলায় বিএনপি’র প্রায় ১২০জন নেতাকর্মী আহত হয়। আহতদের মধ্যে ঘোড়শাল ইউনিয়নের নেতা আশিক, রুবেল, আলামীন, পলাশ, রিয়াজ হাসান, এনামুল, রিয়াজ, রাকিব, শুভ ও পারভেজ আহত হন। মধুহাটি ইউনিয়নের কৃষকদল নেতা ইমরান ও নাজির, সাগান্না ইউনিয়নের বিএনপি নেতা মকলেচুর রহমান বকুল, মহারাজপুর ইউয়িনের বিএনপি নেতা সঞ্জের আলী, গান্না ইউনিয়নের ছাত্রদল নেতা শামীম ও নিশাদ, বিএনপি নেতা আনিচ, শাহাজান, যুবদল নেতা জুবায়ের ও কাওসার, নলডাঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক গেলাম রসুল, বিএনপি নেতা সবজেল, মনিরুল, আলীম, পদ্মাকর ইউনিয়ন কৃষকদলের সভাপতি ওলিয়ার রহমান, শৈলকুপা উপজেলার যুবনেতা আনারুল, জুয়েল, বাবু, মাজেদ, আসাদুল, তারেক, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সাইফুল ইসলাম, কোটচাঁদপুর উপজেলা যুবদল নেতা সিরু, আশরাফ, কোটচাঁদপুর ছাত্রদলের সদ্য সচিব হীরা, কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজার ইউনিয়ন বিএনপি নেতা সফর আলী, যুবদল নেতা লোকমান, কাষ্টভাংগা ইউনিয়নের বিএনপি নেতা আতিয়ার ও যুবদল নেতা পিয়ারকে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা পিটিয়ে আহত করে। হামলা করেই সন্ত্রাসীরা ক্ষ্যান্ত হয়নি, তারা বিএনপি’র নেতাদের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িঘরে হামলা, ভাংচুর ও লূটপাট করেছে। বিএনপি নেতা কামাল আজাদ পাননুর মালিকানাধীন ঝিনাইদহ শহরের প্রিন্স হাসপাতাল এন্ড ক্লিনিকে হামলা চালিয়ে দাতের এক্সরে মেশিন (ওজিটি), অফিস ভাংচুর ও লুটপাট করেছে। এতে প্রতিষ্ঠানটির প্রায় ২৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। হামদহ অঞ্চলের সদর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক ঠান্ডুর প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে প্রায় দুই লাখ টাকার মালঅমাল লুট করেছে। জেলা শ্রমিক দল নেতা শিবলুর ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাংচুর ও নগদ অর্থ লুট করেছে। যুবদলের থানায় আহ্বায়ক আশরাফ হোসেনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাংচুর ও লুটপাট করেছে। আর এই হামলা হয়েছে পুলিশ প্রশাসনের ছত্রচায়ায় ঝিনাইদহ সদর আসনের বিনা ভোটের এমপির ইন্ধনে। এছাড়া সাগান্না ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে নিজেরা আগুন দিয়ে বিএনপি’র ১২ নেতাকর্মীর নামে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা করেছে। লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ফ্যাসিবাদি আওয়ামী সরকার ক্ষমতা হারানোর ভয়ে দেওলিয়া হয়ে গেছে। সংবাদ সম্মেলনে হুসিয়ার উচ্চারণ করে বলা হয়, এভাবে যদি একের পর এক হামলা, বাড়িঘর ভাংচুর লুটপাট ও নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা করা হয় তাহলে প্রতিবাদ স্বরুপ বিএনপি ঝিনাইদহ জেলায় অবরোধ ও হরতালের মত কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে।

ঝিনাইদহ
আতিকুর রহমান।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD