June 25, 2024, 2:57 pm

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
তেঁতুলিয়ায় হোটেল ভাঙচুর, টাকা লুটপাট গোদাগাড়ীতে আইন শৃঙ্খলাকমিটির সভা অনুষ্ঠিত গোদাগাড়ীতে রিকসা চালককে মধ্যযুগীয় কায়দায় সারা রাত নির্যাতন-প্রধান আসামী গ্রেফতার উত্তরা ব্যাংক মহিশালবাড়ী শাখায় প্রতারণার মাধ্যমে গ্রাহকের লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ তানোরে বিএনপির সংবর্ধনা অনুষ্ঠান পন্ড শোক সংবাদ কুমিল্লায় ট্রেনের ধাক্কায় আওয়ামী লীগের নেতার মৃত্যু মুন্সীগঞ্জে গজারিয়ায় আ”লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ৬জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০ মুন্সীগঞ্জে সিরাজদিখানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গেল মাহেন্দ্রা ,চালক নিহত গৌরনদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় মাছ ব্যাবসায়ী ও ভ্যান চালকের মৃত্যু
তেঁতুলিয়ায় ভুল চিকিৎসায় গরুর মৃত্যু, হাতুড়ে চিকিৎসকের জরিমানা

তেঁতুলিয়ায় ভুল চিকিৎসায় গরুর মৃত্যু, হাতুড়ে চিকিৎসকের জরিমানা

মুুহম্মদ তরিকুল ইসলাম, তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ভুল চিকিৎসায় কৃষক পরিবারের একটি গরুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে কথিত প্রাথমিক পল্লী পশুচিকিৎসকের বিরুদ্ধে। সোমবার (২২ আগস্ট ২০২২) সকালে উপজেলার ৫নং বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের কালদাসপাড়া গ্রামের মৃত করিমুলের ছেলে তরিকুল ইসলামের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। হাতুড়ে ওই পশুচিকিৎসকের নাম রুবেল হোসেন। তিনি একই ইউনিয়নের বুড়াবুড়ি গ্রামের মৃত জহিরুল ইসলামের ছেলে।
এ নিয়ে মৃত গরুটির মালিক তরিকুল ইসলাম বলেন, তিনি রোববার (২১ আগস্ট) রাতে কথিত ওই পশুচিকিৎসকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন। পরে কথিত ওই পশুচিকিৎসক গরুর আঁচিল রোগ ভালো হওয়ার জন্য ৫টি ইনজেকশন পুশ করেন। গরুটি সুস্থ্য না হয়ে রোগের পরিস্থিতি বেশি হওয়ায় পরের দিন সকালে গরুটি মারা যায়। ভুল চিকিৎসায় গরুটি মারা গিয়েছে কিনা, তরিকুল ওই কথিত পশু চিকিৎসকসহ স্থানীয় ইউপি সদস্য, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় অন্যান্য প্রাথমিক পল্লী পশু চিকিৎসকদের ডেকে নিয়ে আসেন।
জানা যায়- ইউপি সদস্যা ফাতেমা বেগমের স্বামী মুকুল হোসেন, স্থানীয় অন্যান্য প্রাথমিক পশু চিকিৎসকদের মধ্যে দেলোয়ার, মোয়াজ্জেম, হারুন অর রশিদ, হারুনের কম্পাউন্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ আলী, সাবেক ইউপি সচিব সেরাজুল হক, তহিদুল ইসলাম প্রমূখের উপস্থিতিতে সালিশী বৈঠকের মাধ্যমে কথিত ওই পশুচিকিৎসক রুবেল তার ভুল স্বীকারোক্তিতে ২০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে চেয়েছেন।
এদিকে কথিত প্রাথমিক পল্লী পশুচিকিৎসক রুবেল হোসেন ভুল চিকিৎসার কথা অস্বীকার করে বলেন, তিনি এলার্জিসহ ৫টি ইনজেকশন পুশ করেছেন। তিনি আরোও বলেন, আঁচিলের জন্য যে চিকিৎসা দিতে হয়, তিনি সেই চিকিৎসায় দিয়েছেন। সঠিক চিকিৎসা দেয়া হইলে গরুটি মারা গেল কেন? প্রশ্নোত্তরে বলেন, ভাই (সাংবাদিক) মৃত্যু বলে আসেনা। তাহলে উপস্থিত অন্যান্য প্রাথমিক পল্লী পশু চিকিৎসকগণ বলছেন এটি ভুল চিকিৎসা হওয়ার কারণে মারা গেছেন, এতে আপনি কি বলবেন? তিনি বলেন, আপনি তো ভাই বুঝেন কেউ কারো ভালো দেখতে চাইনা।
স্থানীয় প্রাথমিক পল্লী পশু চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাঁরা নামের সামনে ডাক্তার কথা লিখতে পারবেন না। তাদেরই মধ্যে কতিপয় প্রাথমিক পল্লী পশু চিকিৎসকগণ তাদের ভিজিটিং কার্ডে ‘প্রাণী চিকিৎসক’, ‘ডাক্তার অমুক’ কথার লেখা ব্যবহার করে মূল ধারার প্রাথমিক পল্লী পশু চিকিৎসকদের বিভ্রান্তি করছেন জানিয়েছেন।
সরে জমিনে গিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কথিত ওই প্রাথমিক পল্লী পশুচিকিৎসক রুবেল হোসেন স্বেচ্ছায় মানুষের বাসায় গিয়ে পশু চিকিৎসার কথা বলেন এবং মানুষের ইচ্ছার বিরুদ্ধে চিকিৎসা দেন। শুধু তাই নয়, তিনি তার ভিজিটিং কার্ডে ‘প্রাণি চিকিৎসক’ কথা ব্যবহার করে আসছেন এবং মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে দেয়ালে কিংবা বাঁশের খুঁটিতে কিংবা বারান্দার সড়ে প্রাণি চিকিৎসক রুবেল হোসেন ও তার নাম্বার লিখে দিয়ে বেড়াচ্ছেন। এছাড়া ওই গ্রামে তার চিকিৎসায় ছাগল মারা যাওয়ার কথাও উঠেছে জানতে পারা যায়।
এ ব্যাপারে ইউপি সদস্যা ফাতেমা বেগমের স্বামী মুকুল হোসেন বলেন, তিনি সালিশী বৈঠকটি করেন এবং ওই চিকিৎসককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। তিনি বলেন, টাকা পরিশোধের জন্য কয়েকদিন সময় চেয়ে নিয়েছেন। সেই টাকা না দিলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD