June 25, 2024, 4:21 pm

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
ময়মনসিংহে ১৪দিনে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্যসহ গ্রেফতার-১৬১,জনতার প্রশংশায় কোতোয়ালি পুলিশ

ময়মনসিংহে ১৪দিনে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্যসহ গ্রেফতার-১৬১,জনতার প্রশংশায় কোতোয়ালি পুলিশ

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ
ময়মনসিংহের কোতোয়ালী মডেল থানায় ১-১৪ আগষ্ট গত ১৫দিনে পুলিশের সফলতায় ব্যাপক সাড়া পড়েছে। কোতোয়ালি মডেল থানার আওতাধীন সদর উপজেলার সুধী সমাজ থেকে শুরু করে বিভিন্ন হাট-বাজার , চায়ের দোকানে ওসির গুনো গানে মুগ্ধ। সুধীসমাজ, রাজনৈতিক মহল ও সর্বস্তরের জনগন কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ কামাল আকন্দকে তার এই দূঃসাহসিক ঝটিকা অভিযান চালিয়ে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে শাস্তি প্রদান করায় সর্বস্তরের লোকজন সাধুবাদ জানিয়েছেন।

কোতোয়ালী মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন ওয়াজেদ আলী জানান- কোতোয়ালি মডেল থানায় গত ০১/০৮/২০২২ হতে ১৪/০৮/২০২২ তারিখ পর্যন্ত বিশেষ অভিযানে ১০ টি সাজা পরোয়ানা সহ মোট ওয়ারেন্ট তামিল ১২৯ টি, ২১ কেজি ৬৫০ গ্রাম গাজা, দেশী মদ ১৭ লিটার, ইয়াবা ২৯০ পিস, হেরোইন ২৭ গ্রাম,নেশা জাতীয় ইনজেকশন ১২৯ পিস, বিদেশি মদ ১৭ বোতল উদ্ধার সহ ৪৮ জন মাদক ব্যবসায়ী, চুরি মামলায় ১৫ জন, ছিনতাইকারী ১২ জন, খুন মামলায় ০৩ জন, ধর্ষন মামলায় ০২ জন,নারী নির্যাতন মামলায় ০২ জন, জুয়া মামলায় ৪১ জন, অন্যান্য মামলায় ৩৮ জন সর্বমোট ১৬১ জন আসামী গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর মধ্যে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার পাড়াইলে খুন হওয়ার মাত্র ২৪ঘন্টার মাঝে হত্যাকান্ডের মুলহোতাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করে জনতার মাঝে ব্যাপক প্রশংসার দাবিদার হয়েছে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ। ঘাগড়া ইউনিয়নের পাড়াইলে বালু ট্রাকের হেলপার আসাদ মিয়ার খুনের ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শাহ কামাল আকন্দের দিকনির্দেশনা মোতাবেক পুলিশের অভিযানে তাদের কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, নয়ন মিয়া, আশরাফুল ইসলাম ও রাজাক মেম্বার। হত্যাকান্ডের ২৪ ঘন্টার মধ্যে কোতোয়ালী পুলিশ সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে পৃথক এলাকা থেকে গ্রেফতার করে তাদেরকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

অপরদিকে হত্যাকান্ডের ৩ মাসের সন্ধ্যায়
ময়মনসিংহ সদরের রাকিবুল ইসলাম ঋতু হত্যাকান্ডের মুলহোতা রেদওয়ান আহমদ সোহানকে গ্রেফতার করেছে কোতায়ালী পুলিশ। কোতায়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শাহ কামাল আকন্দের দিকনির্দেশনা মোতাবেক পুলিশ পরিদর্শক ফারুক হাসানের নেতৃত্বে একটি টিম অভিযান পরিচালনা করে চট্টগ্রামের খুলসী থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে তাকে ময়মনসিংহের বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হলে গ্রেফতারকৃত সোহান হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বিকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে বলে পুলিশ জানায়। এ নিয়ে ঋতু হত্যাকান্ডে ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এছাড়াও মাদক,ছিনতাই, চুড়ি,ডাকাতি সহ বিভিন্ন অপরাধ নির্মুলে অভিযান চালিয়েও ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে পুলিশ।

কোতোয়ালী মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ শাহ কামাল আকন্দ বলেন, ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি সারের নির্দেশে আমরা কোতোয়ালী মডেল থানা এলাকাকে মাদক মুক্ত করার শপথ নিয়েছি এবং মাননীয় প্রধান মন্ত্রীকে আমরা মাদক মুক্ত কোতোয়ালি মডেল থানা উপহার দিব।

তিনি আরো জানান- আমাদের এসপি মহোদয় জন বান্ধব পুলিশ অফিসার।ওনার নির্দেশে আমাদের এই অভিযান সফল ও সার্থক হয়েছে এবং আগামীতেও হবে ইনশাআল্লাহ।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD