বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৩২ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে প্রতি কেজি কাঁচা মরিচের মূল্য ডাবল সেঞ্চুরি পার পটিয়ার রাজবল্লব দিঘীতে আকর্ষণীয় বড়শি পাশ মোংলায় নাসা অ্যাপস চ্যালেঞ্জ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন দলনেতা সুমিত’কে সংবর্ধনা প্রদান তারাকান্দায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ভিক্ষুক পুনর্বাসনে ইউএনও’র উদ্যোগ পটুয়াখালীতে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক অনুদানের চেক বিতরণ পাইকগাছায় পাউবো’র সম্পত্তি দখলকারী সেলিমের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় উচ্ছেদ আবেদনকারীকে প্রাণনাশের হুমকি; থানায় জিডি পাইকগাছায় বৃষ্টির অভাবে অনাবাদি ক্ষেত,শঙ্কায় আমন চাষিরা পীরগঞ্জে বিনামূল্যে হাঁস মুরগি বিতরণ নড়াইলে নানা আয়োজনে এসএম সুলতানের জন্মবার্ষিকী পালিত জোয়ার ও বর্ষনে স্লুইজ ভেঙে ভেসে গেছে মৎস্য ঘের , সমুদ্রের জেলেরা নিরাপদে।
বাঘের থাবা খেয়ে লোকালয়ে আসা আহত হরিণ উদ্ধার, দেয়া হচ্ছে চিকিৎসা

বাঘের থাবা খেয়ে লোকালয়ে আসা আহত হরিণ উদ্ধার, দেয়া হচ্ছে চিকিৎসা

মোংলা প্রতিনিধি
মোংলার সুন্দরবনে বাঘের থাবা খেয়ে লোকালয়ে চলে আসা একটি মায়া হরিণ উদ্ধার করেছে বনবিভাগ, ভিটিআরটি ও সিপিজি’র সদস্যরা। সোমবার সন্ধ্যায় বরইতলা গ্রামের আঃ মান্নানের বাড়ী থেকে আহত হরিণটি উদ্ধার করা হয়।
পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের জিউধারা ষ্টেশনের আওতাধীন বরইতলা টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাকির হোসেন জানান, সুন্দরবনে বাঘের থাবা খেয়ে সোমবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে একটি মায়া হরিণ বন সংলগ্ন বরইতলা গ্রামে চলে আসে। পরে হরিণটি ওই এলাকার মান্নানের বাড়ীতে ঢুকলে তার বাড়ীর সীমানার বেড়ার জালে আটকে পড়ে। পরে খবর পেয়ে বনবিভাগ, ভিটিআরটি ও সিপিজি’র সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে হরিণটি উদ্ধার করেন। বন কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, উদ্ধার হওয়া আহত মায়া হরিণটি পুরুষ, এর বয়স ৪/৫ বছর। বাঘের থাবায় হরিণটির ডান শিং, ডান পা ও ডান পাশের পিছনের রানের উপর মারাত্মক ক্ষত হয়েছে।
বনবিভাগের ভিটিআরটি’র (ভিলেজ টাইগার রেসপন্স টিম) কচুবুনিয়ার টিম লিডার মোঃ আলমগীর শিকদার ও সিপিজি’র (কমিউনিটি পেট্রোল গ্রুপ) মোঃ কবির মল্লিক বলেন, বাঘের থাবা খেয়ে ভয়ে লোকালয়ে চলে আসা জখম হরিণটি আমরা ও বনবিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মিলে উদ্ধার করে রাতে চিলা বাজারে নিয়ে যাই। পরে সেখান থেকে সেটির চিকিৎসার জন্য করমজলে পাঠানো হয়েছে। বনের কোন প্রাণী লোকালয়ে আসলে আমরা তাৎক্ষণিক সেটি উদ্ধার করে নিরাপদে বনে ফিরিয়ে দেয়ার কাজ করে আসছি। কোন বন্যপ্রাণীই যাতে লোকালয়ে এসে মারা পড়া কিংবা কোনভাবে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সেজন্য আমরা ভিটিআরটি ও সিপিজির সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছি। তারা আরো বলেন, হরিণটির চিকিৎসার জন্য রাত সাড়ে ৮টার দিকে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আজাদ কবিরের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন ও পর্যটন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আজাদ কবির বলেন, বাঘের থাবায় গুরুতর আহত হরিণটিকে রাতে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এরপর অন্তত দুই তিন পর্যবেক্ষণে রেখে চিকিৎসা করে পুরোপুরি সুস্থ্য হলে হরিণটিকে পুনরায় বনে ছেড়ে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD