February 27, 2024, 2:50 pm

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
নলছিটিতে রাসেল মোল্লা নামের এক যুবককে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় আটক -৪ উজিরপুরে হত্যা চেষ্টা মামলার আসামিরা পারি জমাচ্ছে বিদেশে প্রশাসন নিরব পাইকগাছায় বৃদ্ধি পেয়েছে চুরির প্রবনতা পাইকগাছায় জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত পাইকগাছায় জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত স্থানীয় সরকার দিবসে আগৈলঝাড়ার রাজিহার ইউনিয়নে র‌্যালী আলোচনা সভা ও দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত পাইকগাছা উপজেলা আইনশৃঙ্খলা ও মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত উজিরপুরে পৌরসভা ও প্রশাসনের আয়োজনে স্থানীয় সরকার দিবস পালিত রাষ্ট্রপতি পদক পেলেন সুনামগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার খুলনায় জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস ও জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস পালিত
ঝিনাইদহে ‘গ্রাম উন্নয়ন কর্ম’ এনজিও’র প্রতারণা

ঝিনাইদহে ‘গ্রাম উন্নয়ন কর্ম’ এনজিও’র প্রতারণা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হাটগোপালপুরে ‘গ্রাম উন্নয়ন কর্ম’ (গাক) নামের একটি এনজিও’র বিরুদ্ধে গ্রাহক হয়রানি ও গ্রাহকদের ঋণ দেওয়ার নামে লাখ লাখ টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে হাটগোপালপুর এলাকার গ্রাহক ও ব্যবসায়ীরা। প্রতিবাদে অফিসও ঘেরাও করেছে তারা। জানা যায়, ২০২১ সালের ২৯ আগস্ট গ্রাম উন্নয়ন কর্ম (গাক) হাটগোপালপুর বাজারে শাখা স্থাপন করে। এরপর থেকেই সংস্থাটি এলাকায় ঋণ দেওয়ার নামে সদস্য সংগ্রহ শুরু করে। ইতিমধ্যে ৩’শ সদস্য সংগ্রহ করেছে তারা। গ্রাহকদের স্বল্প সুদে ঋণ দেওয়ার নাম করে ১৩০ টাকা চাঁদা নিয়ে ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে সদস্য করা হয়। সেই সাথে প্রতি লাখে ৫ হাজার টাকা করে সঞ্চয় জমা নিয়েছে। এর কয়েক সপ্তাহের মধ্য গ্রাহকদের ঋণ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত কয়েক মাস যাবত ঋণ দেওয়ার নামে দিনের পর দিন ঘুরাচ্ছে। ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে বøাক চেক নিয়ে ঋণ না দিয়ে দিনের পর দিন হয়রানি করছে। ভুক্তভোগী পানামী গ্রামের ব্যবসায়ী হাফিজুর রহমান বলেন, আমাকে ঋণ দেওয়ার কথা বলে ৩ টি বøাক চেক নিয়েছে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নেওয়ার পর ৫ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা থাকলেও এখনো তারা ঋণ না দিয়ে দিনের পর দিন ঘুরাচ্ছে। এখন টাকাও দিচ্ছে না আবার চেকও দিচ্ছে না। শিহাব উদ্দিন নামের আরেক গ্রাহক অভিযোগ করে বলেন, আমাকে ৩ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা বলে দিনের পর দিন ঘুরাচ্ছে। আমার কাছ থেকে ঋণ দেওয়ার কথা বলে কিছু টাকাও নিয়েছে। কিন্তু এখনো টাকা দিচ্ছে না। একই অভিযোগ করেন, আহম্মদ আলী, তুলনা খাতুন, ইন্দ্রজিৎ নামের কয়েকজন গ্রাহক। তাদের ঋণ দেওয়ার আশ^াস দিলেও টাকা দেওয়া হচ্ছে না। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ওই শাখার ব্যবস্থাপক শরিফুল ইসলাম বলেন, টাকা দেওয়ার কথা ছিল ঠিকই। আমার কিছু করার নেই। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কথা অনুযায়ী আমি গ্রাহকদের কাছ থেকে সময় নিচ্ছি।

ঝিনাইদহ
আতিকুর রহমান।।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD