সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৩৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
নানা আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে লক্ষ্মীপুরে পালিত জাতীয় শোক দিবস সভ্যতার পালে হাওয়া লিখেছেন এস এম আক্তারুজ্জামান বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে সব নদ নদীর পানি বৃদ্ধি বানারীপাড়া উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ২২ বছরেও সংস্কার হয়নি বানারীপাড়ার সঃপ্রাঃবিদ্যালয়ের রাস্তা বানারীপাড়ায় সাংবাদিক রুবেলের পিতার ৩য় তম মৃত্যুবার্ষিকী পাইকগাছায় প্রবল জোয়ারের চাপে ঝুঁকিপূর্ণ ভেড়িবাঁধ ভেঙ্গে বিস্তৃর্ণ এলাকা প্লাবিত আশুলিয়ায় চাচাতো ভাইয়ের হাতে এক বৃদ্ধ খুন ঝিনাইদহে নিজের মেয়েকে পাশবিক নির্যাতন জুতার মালা পরিয়ে পিতাকে পুলিশে সোপর্দ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙালি জাতির স্বপ্নের রূপকার- রওশন এরশাদ এমপি শোক দিবস সফল করতে পটিয়া উপজেলা ও পৌরসভা শ্রমিকলীগের প্রস্তুতি সভা
নতুন ঘোষিত পেস্কেল অনুযায়ী বাড়ি ভাড়া ও মেডিকেল ভাতা দাবীতে আন্দোলন

নতুন ঘোষিত পেস্কেল অনুযায়ী বাড়ি ভাড়া ও মেডিকেল ভাতা দাবীতে আন্দোলন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহ চক্ষু হাসপাতাল ও অন্ধ পুনর্বাসন কেন্দ্রের ৪৫ জন কর্মকর্তা কর্মচারী ২০১৮ সালে ঘোষিত পেস্কেল অনুযায়ী বাড়ি ভাড়া ও মেডিকেল ভাতা পাচ্ছেন না। এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ ও হতাশ তারা। বৃহস্পতিবার বকেয়া পাওয়ানার দাবীতে চক্ষু হাসপাতালের কর্মকর্তা কর্মচারীরা হৈচৈ শুরু করেন। খবর পেয়ে সাধারণ সম্পাদক এড আজিজুর রহমান এসে তাদের জেলা প্রশাসকের সঙ্গে পরামর্শ করার কথা জানান। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, ঝিনাইদহ চক্ষু হাসপাতাল ও অন্ধ পুনর্বাসন কেন্দ্রের ৪৫ জন কর্মকর্তা কর্মচারীরা ২০০৮ সালের পুরানো পেস্কেল অনুযায়ী মেডিকেল ও বাড়ি ভাড়া পাচ্ছেন। আর বেতন পাচ্ছেন ২০১৮ সালে ঘোষিত পেস্কেল অনুযায়ী। এই বৈষম্য দুরীকরণে বৃহস্পতিবার হাসপাতালের প্যারা মেডিক আবু দাউদের নেতৃত্বে ঝিনাইদহ চক্ষু হাসপাতাল ও অন্ধ পুনর্বাসন কেন্দ্রের কর্মকর্তা কর্মচারীরা আন্দোলন শুরু করেন। কিন্তু তাদের কথা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শোনেন না বলে অভিযোগ। এ ব্যাপারে তারা বহুবার লিখিত দিয়েছেন, কিন্তু কোন কাজ হয়নি। হাসপাতালে চাকরীরত তরিকুল ইসলাম জানান, ১৫ বছর ধরে তাদের ইনক্রিমেন্ট বন্ধ রয়েছে। এই র্দুমুল্যের বাজারে অধিকাংশ কর্মকর্তা কর্মচারী দায়দেনায় জড়িয়ে পড়েছেন। বিষয়টি নিয়ে বিকালে জেলা প্রশাসকের সাথে তাদের বসার কথা রয়েছে বলে তিনি জানান। এ বিষয়ে হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মিলন হোসেন জানান, হাসপাতালের জনবল কাঠামো একটি আইনে চলে। আগে ফান্ডের অবস্থা খারাপ ছিল, এখন ভালো। হাসপাতালের কর্মকর্তা কর্মচারীদের দাবী সঠিক আছে। তিনি বলেন, জেলা প্রশাসকের সঙ্গে আমাদের বিকালে বৈঠক রয়েছে। তিনি দাবী মেনে নিলে কর্মকর্তা কর্মচারীরা নতুন পেস্কেলে বাড়িভাড়া ও মেডিকেল ভাতা পাবেন।

ঝিনাইদহ
আতিকুর রহমান

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD