সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
সংবাদ প্রচারের পর শেখ ফজিলেতুন্নেছা দাখিল মাদরাসা এমপিওভুক্ত ও জাতীয়করণ শৈলকুপায় বাস চাপায় বাইসাইকেল আরোহী কৃষক নিহত পাইকগাছার সোলাদানা ইউনিয়নে মরা কুচিয়া নদীর উপর ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজ; দূর্ঘটনার আশংখা প্রধান শিক্ষক যায় আর আসে বদলগাছীতে স্কুলের মালামাল চুরি ও লুটপাটের অভিযোগ সহাকারী শিক্ষক ও দপ্তরীর বিরুদ্ধে নড়াইলে প্রতিবন্ধীর মৃত্যু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের রাবার বুলেট নিক্ষেপ আটক ১২জন র‌্যাব-১২’র অভিযানে সিরাজগঞ্জের সদরে ০১ গ্রাম হেরোইন ও ৩৭ পিচ ইয়াবাসহ ০১ জন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আটক। জাতীয় শোক দিবস পালনে আমিনপুরে প্রস্তুতিমূলক সভা জাতীয় শোক দিবস পালনে আমিনপুরে আ.লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা বীরগঞ্জে জাতীয় পাটির বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত ৪দিন পেরিয়ে গেলেও মালামাল উদ্ধারে ব্যর্থ পুলিশ বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে পুলিশের উপস্থিতিতেই মোবাইল ও টাকা ছিনতাই
মোংলার চটেরহাটে জমে উঠেছে কোরবানির পশুর হাট

মোংলার চটেরহাটে জমে উঠেছে কোরবানির পশুর হাট

বায়জিদ হোসেন, মোংলাঃ
মোংলার ঔতিহ্যবাহী চটেরহাট বাজারে কোরবানির পশুর হাট জমে উঠেছে। সোমবার সকাল থেকে মোংলার বৃহত্তর এ হাটে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গরু আসতে শুরু করে।
দুপুরের পরই কোরবানির পশু দিয়ে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় হাট। হাটে বড়, মাঝারি ও ছোট সাইজের প্রচুর গরু উঠলেও দাম চড়া থাকায় অনেক ক্রেতা ফিরে এসেছেন।
কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে সোমবার ও বৃহস্পতিবার দুই দিন হাটে গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া কেনাবেচা চলবে।
সোমবার সকালে হাটে গিয়ে দেখা গেছে, প্রচুর কোরবানির পশুর আমদানি হয়েছে। মোটামুটি কেনাবেচা হয়েছে বলে, ক্রেতা-বিক্রেতারা জানিয়েছেন। তবে হাটে দেশীয় মাঝারি সাইজের গরুর চাহিদা বেশি ছিল। তাই এ জাতের গরুর দাম তুলনামূলক বেশি ছিল। হাটে সবচেয়ে বড় গরুর দাম হাঁকা হয়েছিল ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা। উপজেলার নিতেখালী গ্রামের দেলোয়ার হোসেন ও গোয়ালীরমেঠ গ্রামের নূর মোহাম্মাদ শেখ জানান, তারা কোরবানির জন্য দেশি জাতের মাঝারি গরু কিনতে এসেছেন। কিন্তু বড় গরুর তুলনায় এ ধরনের গরুর দাম বেশি। তাই তার মতো অনেক ক্রেতাই ফিরে যাচ্ছেন। আগামী দিন জেলার অন্য কোনো হাটে যাবেন। এদিকে হাটের ইজারাদার ও বাজার কমিটির সভাপতি মোস্তফা কামাল ইজারাদার জানিয়েছেন, হাটের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ক্রেতা ও বিক্রেতারা যাতে প্রতারিত না হন সে জন্য মাইকে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। পাশাপাশি উঠছে ছাগল ও ভেড়াও। হাটে প্রতিনিয়ত ভিড় বাড়ছে ক্রেতা দর্শনার্থীদের। তবে বিভিন্ন সাইজের গরু থাকলেও ক্রেতাদের চাহিদা মাঝারিতে।
বিক্রেতারা জানান, ভিড় বাড়লেও খুব একটা ক্রেতা পাওয়া যাচ্ছে না। অল্প সংখ্যক বিক্রি হলেও মাঝারি সাইজের গরু নিচ্ছেন ক্রেতারা। বড় গরুর কেউ কিনতে চাইছেন না। তাই বিক্রিও হচ্ছে। ক্রেতারা মাঝারি সাইজের গরুর দিকে ঝুঁকছেন বেশি।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD