July 18, 2024, 5:30 am

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
পানছড়িতে মা মনসা পুঁথি পাঠের আসর জমে উঠেছে গোপাল হাজারীর বাড়িতে কোট বি*রোধীদের উপর হাম*লার প্রতি*বাদে ঝিনাইদহে ছাত্রদলের বিক্ষো*ভ নবাগত গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ফুলদিয়ে শুভেচ্ছা জানালেন যুবলীগ সভাপতি তানোরে বঙ্গবন্ধু অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল টুর্নামেন্ট সম্পন্ন নড়াইল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র পৌর মেয়র আনজুমান আরা সভাপতি নির্বাচিত বাংলাদেশ জমইয়াতে হিজবুল্লাহর নায়বে আমীর হযরত মাওলানা শাহ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহর ইন্তে*কাল ধামইরহাটে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামানের গাছ রোপন লালমনিরহাটে ফেন্সিডিল, মোটরসাইকেলসহ দুইজন আ*টক  পুঠিয়ায় পূর্ব শ*ত্রুতার জেরে মসজিদের ইমামকে হ*ত্যার চেষ্টা নিহ*ত শিক্ষার্থীদের স্মরণে গাজীপুরে গায়েবানা জানাজা
আশুলিয়ায় ভূমিদস্যু বাহিনী কর্তৃক জমি দখলের চেষ্টায় ভাংচুর-থানায় একাধিক জিডি ও মামলা

আশুলিয়ায় ভূমিদস্যু বাহিনী কর্তৃক জমি দখলের চেষ্টায় ভাংচুর-থানায় একাধিক জিডি ও মামলা

হেলাল শেখ।
বিশেষ প্রতিনিধিঃ ঢাকার আশুলিয়া ইউনিয়নের আউকপাড়া এলাকার বাসিন্দা মৃত চাঁন মিয়া’র ছেলে মোঃ সোনা মিয়া গংদের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে জমি দখলের চেষ্টায় ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ভুমিদস্যুদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় একাধিক জিডি ও মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীরা।
আশুলিয়া থানার মামলা সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ থানার বাংলাবাজার পুরাতন তুইতাল এলাকার শেখ মতিউর রহমানের ছেলে শেখ জুয়েল রানা (৩৫) বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন, মামলা নং ২৮। তারিখ ০৯/১১/২০২২ইং, ধারা ১৪৩/৪৪৭/৩২৩/৩৭৯/ ৪২৭/৫০৬। এ মামলায় বিবাদী ১। আশুলিয়া ইউনিয়নের আউকপাড়া এলাকার মোঃ সোনা মিয়ার ছেলে মোঃ রুবেল হাসান (৩২), ২। মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে মোঃ সোনা মিয়া (৫০), ৩। আশ্রাফ আলীর ছেলে আহম্মদ (৫২), ৪। আব্দুল জলিল (৩২), ৫। নুর মোহাম্মদ, ৬। মোঃ আরজু দেওয়ান, সর্বসাং আউকপাড়া, পোঃ ডেইরী ফার্ম,থানা আশুলিয়া, জেলা ঢাকাসহ আরও ভূমিদস্যুদের অনেকের বিরুদ্ধে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগে আশুলিয়া থানায় একাধিক জিডি ও মামলা করায় নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার।
উক্ত মামলার বাদী শেখ জুয়েল রানা গণমাধ্যমকে বলেন, সোনা মিয়া ও রুবেল হাসান গং এবং বিবাদীগণ ভূমিদস্যুরা বিভিন্ন অপরাধের সাথে সম্পৃক্ত। আশুলিয়া থানাধীন আউকপাড়া মৌজাস্থ আর, এস-৫৫ নং খতিয়ানে আর, এস-২৬৮ নং দাগের বি, আর, এস দাগ নং ২৫০১, ২৫১২, ২০১৩, ২৫১৪, ২৪৯৭, ২৫০০ নং দাগের ৪৬. ৫০ শতাংশ জমি ক্রয়সূত্রে মালিক আমার পিতাসহ মোট ১১জন। জমির চারি দিকে ইটের পাকা বাউন্ডারী করা। একটি প্লটে বাড়ি নির্মাণ করা হয়। যাহাতে ভাড়াটিয়াগণ বসবাস করিত। আমার পিতার জায়গায় ঘর-বাড়ি নির্মাণ করার উদ্দেশ্যে আমি ও আমার চাচা রিয়াজ উদ্দিন, শাহিন, সুমন ও মিস্ত্রিদের নিয়ে প্লটে মাফযোগ করতে গেলে বিবাদীগণ আমাদের কাজে বাঁধা প্রদান করে। তারা আমাদের জায়গায় কোনো রকম কাজ করতে দিবে না বলে ও জায়গায় সন্ত্রাসী কায়দায় আমাদেরকে বিভিন্ন ভাবে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে। তিনি আরও বলেন, বিবাদীরা আমাদের জমি অবৈধভাবে জবর দখল করার পায়তারা করিয়া আমাদেরকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করিতেছে। তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন তারিখে ও বিভিন্ন সময়ে আমাদের জমির উপর থাকা বাউন্ডারী ওয়াল ভাংচুর করিয়া ক্ষতিসাধন করেছে তারা, এক পর্যায়ে আমাদের জমি জবর দখল করার উদ্দেশ্যে বিবাদীরা লাঠি সোটা ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বে-আইনীভাবে দলবদ্ধ হইয়া গত (০৬/১১/২০২২ইং) তারিখে সকাল ১০টার দিকে আমাদের জমিতে সন্ত্রাসী কায়দায় অনাধীকার ভাবে প্রবেশ করিয়া আমাদের জমির বাউন্ডারী ওয়াল ভাংচুর করে এর প্রায় ২,০০,০০০/ টাকার ইট লুটপাট করে নিয়ে যায় বিবাদীরা। তিনি আরও বলেন, আমাদের বি, আর, এস দাগ-২৫১২ প্লটে ১ম তলা একটি বাড়ি নির্মাণ করা আছে উক্ত বাড়ির বিদ্যুৎ লাইন কেটে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়ে বাসার ভাড়াটিয়াদের বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে মারধর করিয়া বাহির করে দিয়েছে বিবাদীরা, এই ঘটনার সাথে জড়িতদের আটক করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশ ও র‌্যাবের হস্তক্ষেপ কামনা করেন এই ভুক্তভোগীরা।
এ বিষয়ে আরও একজন বাদী শেখ রিয়াজ উদ্দিন বলেন, ১২০ শতাংশের কাতে আমাদের ৪৬. ৫০ শতাংশ জমি ক্রয়সূত্রে আমরা ১১জন মালিক। সোনা মিয়া, রুবেল গং এলাকার প্রভাবশালী তাই আমাদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করছে, আমরা জমিতে দখলে আছি, আমরা এই জমি ১৯৯৯সালে যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বায়া দলিলমূলে ক্রয় করি এবং জমির মিউটেশন করে খাজনা দিয়ে আসছি, আমাদের জমির কাগজপত্র সঠিক আছে। আমরা এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানায় একাধিক জিডি ও মামলা করেছি। আমাদের এই জমি অবৈধভাবে দখলের চেষ্টা করছে বিবাদীরা। আমরা আইনকে সম্মান করি, তাই আইনগত ভাবে লড়ছি, আমরা এর বিচার চেয়ে আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আশুলিয়া থানা, ঢাকা জেলা পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন অফিস আদালতে আমাদের বৈধ কাগজপত্র দিয়েছি, এ ব্যাপারে পুলিশ ও র‌্যাবের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শেখ রিয়াজ উদ্দিন নামের এই ভুক্তভোগী।
উক্ত ব্যাপারে বিবাদী সোনা মিয়ার কাছে জমির কি কাগজপত্র আছে জানতে চাইলে তিনি জমির কোনো দলিল বা কাগজপত্র দেখাননি এবং কি একটা ৭ নং দাগ বা ৭/৪৪ নং এর কথা বলেন আর একজন সাংবাদিক পরিচয়দানকারীর কাছে মোবাইল ফোন ধরিয়ে দিয়ে বিষয়টি এড়িয়ে যান তিনি।
আশুলিয়া থানার (এসআই) ফরহাদ বিন কবির এর কাছে উক্ত ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, গতকাল ৯ নভেম্বর ২০২২ইং আশুলিয়া থানায় জুয়েল রানা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন, উক্ত বিবাদী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে, আসামীদের গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান। র‌্যাব জানায়, গোয়েন্দা তদন্ত শেষে গ্রেফতার করা হবে আসামীদেরকে। উক্ত ব্যাপারে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD