July 17, 2024, 11:33 am

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম :
নড়াইলের মধুমতি নদী থেকে গ*লিত ম*রদেহ উদ্ধার ৬ মিনিটেই মিলছে নির্ভুল জন্ম নিবন্ধন সনদ চারঘাটে গরুর লাম্পি স্কিন ডিজিজ রোগের প্রাদু*র্ভাব বানারীপাড়ায় বিশারকান্দিতে ৫০ বছর ধরে ভাসমান সবজি চাষে সফল চাষীরা আশুলিয়ায় তিতাস গ্যাসের ৫ শতাধিক বাসা বাড়ির অ*বৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন টুরিস্ট পুলিশ ঢাকা রিজিয়ন এবং টুর অপারেটর এসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ এর মত বিনিময় গোদাগাড়ীতে গবাদিপশুর ল্যাম্পি স্কিন ডিজিজ সম্পর্কে উঠান বৈঠক, মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালিত পাইকগাছায় বিপুল পরিমাণ কারেন্ট জাল জ*ব্দ পাইকগাছায় পানিতে ডু*বে শিশুর মৃ*ত্যু জাতীয় নৃত্য প্রতিযোগিতায় ঝালকাঠির মেয়ে সুকন্যার স্বর্ণপদক জয়
পঞ্চগড়ে মানহানিকর বক্তব্য উপস্থাপন করার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

পঞ্চগড়ে মানহানিকর বক্তব্য উপস্থাপন করার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

মোঃ বাবুল হোসেন পঞ্চগড় ;
গত(১৭ অক্টোবর) জেলা পরিষদ নির্বাচন। পঞ্চগড় বিষয় নিয়ে এ্যাডভোকেট আবু বক্কর সিদ্দিক পঞ্চগড় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী এ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন এমপি ও সিনিয়র সহ-সভাপতি পঞ্চগড় ১ আসনের এমপি আলহাজ্ব মজাহারুল হক প্রধান, জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো: আনোয়ার সাদাত সম্রাট সহ জেলা আওয়ামী লীগের সকল নেতৃবৃন্দ সম্মানিত জন প্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে সামাজিক গণমাধ্যম ফেসবুক এবং সংবাদ সম্মেলনে মিথ্যা ভিত্তিহীন কুরুচিপূর্ণ ও মানহানিকর বক্তব্য উপস্থাপন করার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পঞ্চগড় জেলা পরিষদ নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আয়োজনে পঞ্চগড় প্রেসক্লাব হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

উপস্থিত সংবাদ সম্মেলনে সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম পল্লব লিখিত বক্তব্যে বলেন,আওয়ামী লীগের মনোনীত জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু তোয়াবুর রহমানের সহোদর ভাই এ্যাডভোকেট আবু বক্কর সিদ্দিক ২০১৬ সালে জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়ে পরাজয় বরণ করার পর সম্মানিত ভোটারবৃন্দ কে মামলা, পেশিশক্তি ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক অর্থ ফেরত নেন যা এবারের জেলা পরিষদ নির্বাচনে এর বিরূপ প্রভাব পড়েছে।

আবু বক্কর সিদ্দিক জেলা আইনজীবী সমিতিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে জামায়াত বিএনপির প্রার্থীর হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন, যাহা সংগঠনবিরোধী।

আবু বক্কর সিদ্দিক বিভিন্ন সময়ে আওয়ামী লীগের নেতাদের বিপক্ষে প্রকাশ্য কটাক্ষ করে কথাবার্তা বলেন।

২০১৬ সালে জেলা পরিষদ নির্বাচনে জোরপূর্বক অর্থ ফেরত নেয়ার কারণে বিভিন্ন ইউনিয়নের সম্মানিত ভোটারবৃন্দ প্রার্থীর সহোদর ভাইদের ব্যবহারে অসন্তুষ্ট হয়ে দলীয় প্রার্থীকে ভোট প্রদান করে নাই।

ভোট চলাকালীন সময় আবু বক্কর সিদ্দিকের নেতৃত্বে বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে অশ্লীল স্লোগান এর কারণে ভোটাররা মোটরসাইকেল প্রতীকের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন।

বিভিন্ন উপজেলায় নির্বাচনী প্রচারণায় জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দকে সাথে না নিয়ে প্রচারণা চালানো বা অভিহিত না করা।

সম্মানিত গণমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতিতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগকে জানাতে চাই,জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক নেতৃত্বে সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নিঃস্ব ব্যবস্থাপনার দলীয়ভাবে স্বতঃস্ফূর্তভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।

পঞ্চগড় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাননীয় রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন এমপি,সিনিয়র সহ-সভাপতি পঞ্চগড় ১ আসনের এমপি আলহাজ্ব মজাহারুল হক প্রধান, জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো: আনোয়ার সাদাত সম্রাট সহ জেলা আওয়ামী লীগের সকল নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে সংবাদ সম্মেলনে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে হেও প্রতিপন্ন করে। যা সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া অত্যাবশ্যক।

সর্বশেষ পঞ্চগড় জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে সভাপতি পদে প্রার্থী আবু তোয়বুর রহমান ও তার সহোদর ভাই আবু বক্কর সিদ্দিক সক্রিয় প্রার্থী ছিলেন। এতে এটা স্পষ্ট হয়ে যায় তাদের মধ্যে পরিবারিক অন্তঃকোন্দল ছিল। পরবর্তী সময়ে এক ভাই প্রার্থী হয়ে অপর ভাই জেলা পরিষদ নির্বাচনের আহবায়ক কমিটিতে কেন্দ্র সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।আমরা আশঙ্কা করছি নির্বাচনে কেন্দ্র সচিবের রহস্যজনক ভূমিকার কারণে প্রার্থীর পরাজয় হয়েছে।

সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে গত(২১ অক্টোবর)সংবাদ সম্মেলন করেছেন আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির উজ্জল বলেন, যিনি কাল এখানে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন, নিজেকে আওয়ামী লীগের কর্মী দাবি করেন, আওয়ামী লীগের নেতা দাবি করেন অথচ তিনি সরাসরি একটি সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে পঞ্চগড় জেলা আওয়ামীলীগের তিনি কলঙ্কিত করেছেন
তিনি সাংবাদিক সম্মেলনের মধ্য দিয়ে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া তাদের মাধ্যমে সারা বাংলাদেশের তিনি ইতিমধ্যে জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দকে কলঙ্কিত করেছেন এটি আমি আমার পৌর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং তার বিরুদ্ধে আপনাদের মাধ্যমে জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর কন্যা ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি।

সাবেক যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ নির্বাচন কমিটির আহ্বায়ক আবু সারওয়ার বকুল বলেন,সিদ্দিক সাহেব যে সাংবাদিক সম্মেলন করল উনি কারোর সাথে কোন পরামর্শ করল না জেলা আওয়ামী লীগের অন্যান্য নেতাদের সাথে পরামর্শ করতে পরতো উনি একাই এসে দলের একটা বদনাম করে আমাদেরকে একটা হেও প্রতিপন্ন করল আমরা চাই আগামী দিনে আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের আবেদন এরকম যারা ঊশৃংখল এবং দলের বিরুদ্ধে যারা অপপ্রচার করে আবু বক্কর তার মধ্যে একজন। সেই কারণে আমি মনে করি আগামী দিনে যে উনি জেলা আওয়ামী লীগ করার যোগ্যতা নেই।

এছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন ,বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক জাকির হোসেন, সাবেক যুগ্মসাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মির্জা সারওয়ার হোসেন, সাবেক প্রচার সম্পাদক বাবু বিপেন চন্দ্র রায়,সাবেক অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মোশারফ হোসেন,জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী রেজিয়া খাতুন,সাবেক জেলা আওয়ামীলীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক নুর নেহার নুরি,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজি আল তারিক,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিলুফার ইয়াসমিন প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media






© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD