শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি : 🔊
🇧🇩 বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম: 🇧🇩
জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার উদ্যোগকে সাংবাদিক মোঃ রাসেল সরকারের ৩৭ তম জন্মদিন পালিত মাদক মামলায় জয়পুুরহাটে নারীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড চিকিৎসকরা সততা ও নিষ্ঠার সাথে রোগী দেখবেন -আমির হোসেন আমু এমপি মহেশপুরে হেযবুত তওহীদের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত ৪ ফেব্রুয়ারী খুলনার সমাবেশ সফল করার লক্ষে কেশবপুরে বিএনপির প্রস্তুতি সভা চলাকালে হামলার অভিযোগ রামগড়ে শীতার্তদের মাঝে কম্বল ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা কুড়িগ্রামে গোলজার মাস্টারের দাফন সম্পন্ন হাজারো মানুষের চোখের জলে সাবেক চেয়ারম্যান শাহীন’র অন্তিম শয়ন ১৫দিনেও পাননি মেয়ের শ্লীলতাহানির বিচার, ক্ষোভে বাবার আত্মহত্যা খুলনায় বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে যশোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের লিফলেট বিতরণ
এক বছরের সাজার ভয়ে চার বছর পলাতক! হরিণাকুন্ডু উপজেলা আওয়ামলীগের সাধারণ সম্পাদককে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান

এক বছরের সাজার ভয়ে চার বছর পলাতক! হরিণাকুন্ডু উপজেলা আওয়ামলীগের সাধারণ সম্পাদককে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলা আওয়ামলীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলামকে কারাগারে পাঠিয়েছে ঝিনাইদহের একটি আদালত। রোববার দুপুরে এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত একটি সিআর মামলার আসামী রবিউল ইসলাম আপীল শর্তে জামিন নিতে গেলে ঝিনাইদহ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট প্রথম আদালতের বিচারক সঞ্জয় পাল জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠান। আদালত সুত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ১১ নভেম্বর রবিউল ইসলাম ও তার ভাইরা শাহিনকে দন্ডবিধির ৩২৩ ধারায় দোষি সাব্যস্ত করে বিজ্ঞ আদালত এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন। এরপর থেকে তিনি পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে চার বছর ধরে পলাতক ছিলেন। আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোহাম্মদ আলী জানান, ২০০৯ সালের ২ নভেম্বর মামলার বাদী মনিরা আক্তারের স্বামীকে রবিউল ও তার ভাইরা শাহিন মারপিট করেন। এ ঘটনায় মনিরা আক্তার বাদী হয়ে আদালতে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন যার নং ৩৫০/১৯। মামলাটি পুলিশ তদন্ত করে রবিউল ও তার ভাইরাকে দোষি সাব্যস্ত করে রিপোর্ট দিলে সিআর (নং ৬৮১/১১) মামলায় রুপান্তরিত হয়। বিজ্ঞ আদালতের বিচারক সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে ২০১৮ সালের ১১ নভেম্বর রবিউল ইসলাম ও তার ভাইরা শাহিনকে দোষি সাব্যস্ত করে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন। ওই মামলায় রবিউল ইসলাম আদালতে আত্মসমর্পন না করে পলাতক ছিলেন। রোববার দুপুরে আপীল শর্তে জামিন নিতে গেলে বিজ্ঞ আদালতের বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠিয়ে দেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD