বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১১:৫১ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
পঞ্চগড়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে এক কৃষকের মৃত্যু শাহীনুজ্জামানের হাত ধরে সুজানগরে বিএনপির ৪ শতাধিক নেতাকর্মীর আ.লীগে যোগদান মধ্যরাত থেকে ইলিশ শিকার নিষিদ্ধ, জেলে পল্লীতে হাহাকার পাইকগাছায় জাতীয় জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন দিবসের আলোচনা সভা পাইকগাছায় বিদ্যুতায়িত হয়ে দোকানদারের মৃত্যু নওগাঁর আত্রাইয়ে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা সুজানগর পৌরসভার উদ্যোগে জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালিত জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনে জেলার সেরা সুজানগর পৌরসভা স্বরূপকাঠির সম্ভাবনাময় জাহাজ শিল্প পাইকগাছায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক প্রদত্ত মানবিক সহায়তা চেক বিতরণ
অনেক ঘাতপ্রতিঘাতের পর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আ’লীগ আবারও ঘুরে দাঁড়িয়েছে- ত্রিশালে মতিন সরকার।।

অনেক ঘাতপ্রতিঘাতের পর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আ’লীগ আবারও ঘুরে দাঁড়িয়েছে- ত্রিশালে মতিন সরকার।।

আরিফ রববানী ময়মনসিংহঃ ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা, ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান, সাবেক সফল সাংসদ আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সরকার বলেছেন,১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করে শুধুমাত্র একটি পরিবারকে হত্যা করা হয়নি, হত্যা করা হয়েছে একটি জাতিকে। কারণ বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর খুনি মোশতাক-জিয়ার নেতৃত্বে ইনডেমনিটি আইন পাস করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার বন্ধ করা হয়। বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় গিয়ে যখন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফাঁসি ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু হয়, তখন বিএনপি-জামায়াত জোটের মাথা খারাপ হয়ে যায়। তারা আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা থেকে সরানোর জন্য নানা ষড়যন্ত্র চালিয়ে যেতে থাকে। তাদের সেই ষড়যন্ত্র সফল হয়নি এবং আগামীতেও হবেনা।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ত্রিশাল উপজেলা শাখার পক্ষ থেকে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে গৃহীত মাসব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে
বৃহস্পতিবার (২৫আগস্ট) বিকালে উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠন নেতৃবৃন্দের যৌথ উদ্যোগে বালিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে জাতীয় শোক দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও গণভোজের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আজ আমাদের যে শোক,সেই শোককে শক্তিতে পরিণত করে, জাতির পিতা সোনার বাংলা গড়ার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তাঁরই সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা সে লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছেন। সেটাই আমাদের বড় প্রাপ্তি এবং জাতির পিতার লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নের প্রত্যয় নিয়েই আমরা এগিয়ে যেতে চাই। সে লক্ষে সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করারও আহবান জানান ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মীবান্ধব এই নেতা।

বালিপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পাঁচ বারের নির্বাচিত সফল চেয়ারম্যান,মেধাবী রাজনীতিবিধ গোলাম মোহাম্মদ বাদল এর সার্বিক তদারকি ও সহযোগীতায় আয়োজিত উক্ত শোক সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব এবিএম আনিসুজ্জামান আনিছ, জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট জালাল উদ্দীন খান,ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল কালাম শামসুদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ইকবাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এড জিয়াউল হক সবুজ,জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ফজলে রাব্বি,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক এ এন এম শোভা মিয়া আকন্দ,সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম মন্ডল, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুতফন্নেছা বিউটি,উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইব্রাহিম খলিল নয়ন প্রমূখ।

সভায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, সাবেক এমপি আব্দুল মতিন সরকার বলেন- ওদের ধারণা ছিলো বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করলেই আওয়ামীলীগকে এদেশ থেকে নিঃচিন্হ করা যাবে,তবে রাখে আল্লাহ মারে কে,আল্লাহর রহমতে বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহেনা জীবিত রয়েছেন। তিনি বলেন-অনেক ঘাতপ্রতিঘাতের পর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আবার আওয়ামী লীগ ঘুরে দাঁড়ালো। ১৯৯৬ সালে তার নেতৃত্বে সরকার গঠন হলে ইনডেমনিটি বাতিল করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার শুরু হলো। ২০০৯ সালে যদি আওয়ামী লীগ আবার ক্ষমতায় না আসতো তাহলে এ দেশে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের ফাঁসি কার্যকর হতো না।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ এর সঞ্চালনায় ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহাদাত উল্লাহ আদনান এর সার্বিক সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন- বালিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার,সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইসমাইল হোসেন মেম্বার,কানিহারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদ উল্ল্যাহ মাষ্টার, বইলর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মশিউর রহমান শাহানশাহ, কাঁঠাল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর তরফদার,উমর ফারুক, বালিপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি হারুন অর রশিদ, সাধারন সম্পাদ মনিরুল হক,সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম সোহাগসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। পরে আলোচনা সভা শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও গণতন্ত্রের মানসকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয় এবং গণভোজ বিতরণ করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD