শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় পাহাড়ে শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নে ভূমি সমস্যা সমাধান দরকার প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে পটিয়ায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে আনন্দ শোভাযাত্রা পলোগ্রাউন্ড মাঠে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে পটিয়ায় ছাএলীগের প্রস্তুতি সভা হবিগঞ্জে ধর্ষণের দায়ে দুই জনের মৃত্যুদন্ড শেখ হাসিনাকে বরণ করতে চট্টগ্রামবাসী প্রস্তুতঃ বদিউল আলম ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে জায়গা জমির জের ধরে ৮০ বছরের বৃদ্ধকে হত্যা ক্ষেতলালে ৬ বছরের শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় ফেরিওয়ালা গ্রেফতার মোংলা পোর্ট পৌরসভার ৪৭ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত বনার্ঢ্য আয়োজনে নিসচা টঙ্গীবাড়ী উপজেলা শাখার ২৯ তম প্রতিষ্টা বাষিকী পালিত
হবিগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ড্রেস পরে না আসায় শাস্তি পেল ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী

হবিগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ড্রেস পরে না আসায় শাস্তি পেল ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি।।

হবিগঞ্জ শহরের বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ড্রেস পরে স্কুলে না আসায় শাস্তি পেতে হল ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী সাদিয়া আক্তারকে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা মৌসুমী রায়কে শোকজ করা হয়েছে। আগামী ৭ দিনের মধ্যে ওই শিক্ষিকাকে কারণ দর্শানোর জন্য বলা হয়েছে। শিক্ষিকা মৌসুমী রায় ওই স্কুলের একজন খন্ডকালীন শিক্ষক বলে জানা গেছে। গত বৃহস্পতিবার এ ঘটনাটি ঘটলেও পরদিন শুক্রবার সাপ্তাহিক বন্ধ হওয়ায় শনিবার বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসেন ওই স্কুলের শিক্ষকবৃন্দ। পরে তারা কারণ দর্শানোর বিষয়ে নোটিশ প্রদান করেন। সাদিয়া আক্তার শহরের মাহমুদাবাদ এলাকার বাসিন্দা।
জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার সাদিয়া আক্তার নামে ওই ছাত্রী স্কুলের ড্রেস না পরে স্কুলে যান। এসময় বিষয়টি নজরে আসে শিক্ষিকা মৌসুমী রায়ের। পরে তিনি ওই ছাত্রীকে ড্রেস না পরে আসার কারণে শাস্তি প্রদান করেন। পরে বিষয়টি ওই ছাত্রীর পরিবার থেকে স্কুল কর্তৃপক্ষকে মৌখিক ভাবে জানানো হয়। যদিও স্কুল ছাত্রীর দাবী, বোরকা পরে স্কুলে আসায় তাকে শাস্তি দেয়া হয়েছে। শনিবার বিষয়টি নিয়ে জরুরি আলোচনায় বসে স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকাগণ। আলোচনা শেষে তারা ওই শিক্ষিকাকে শোকজ করেন এবং আগামী ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য নোটিশ দেয়া হয়।
এ বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রোকেয়া খানম জানান, বিষয়টি জানার পর তাৎক্ষণিক আমি শিক্ষকদের নিয়ে জরুরি আলোচনায় বসি। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওই শিক্ষিকাকে শোকজ এবং ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য বলা হয়েছে। তিনি বলেন, পরবর্তীতে সন্তোষজনক জবাব না পেলে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
জানতে চাইলে জেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ রুহুল্লাহ জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে খোঁজ খবর নিয়ে দেখছি। তবে অভিযুক্ত শিক্ষিকা মৌসুমী রায় এ ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD