শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:০৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
প্রতারক চক্র সক্রিয়-আশুলিয়ায় ‘বাংলার বন্ধু মাল্টিপারপাসের ২ প্রতারককে গ্রেফতার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণ সারা বিশ্বের মানুষ প্রশংসা করেন পাইকগাছা থানা পুলিশের অভিযানে মাদক সহ বিক্রেতা আটক আদালতের নির্দেশে ৩২ মাস পর পরিচয় উদ্ধার ঝিনাইদহ কারাগারে বিনা বিচারে আটক স্বরূপকাঠিতে ইউএসএইড গোল্ডস্টারদের মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হুমকিতে দেশীয় প্রজাতির মাছ অজ্ঞানপার্টির কবলে বাসযাত্রী ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে র‍্যালি ও শোভাযাত্রা খাগড়াছড়িতে আওয়ামী মহিলা লীগ ও যুব মহিলা লীগ কর্তৃক বিক্ষোভ মিছিল বইলর ইউনিয়ন আ’লীগের উদ্যোগ শোক দিবসের আলোচনা সভা,মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
শার্শায় ঘেরে বিষ দিয়ে মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ , ১২ লক্ষধিক টাকার৷ মাছের ক্ষতি

শার্শায় ঘেরে বিষ দিয়ে মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ , ১২ লক্ষধিক টাকার৷ মাছের ক্ষতি

আজিজুল ইসলামঃ যশোরের শার্শা উপজেলার পান বুড়ী গ্রামে একটি ঘেরে বিষ দিয়ে মাছ মেরে ফেলার ঘটনা ঘটেছে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আহম্মদ আলী গাজি নামের এক মাছ চাষির মাছের ঘেরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করা হয়েছে। এতে আহম্মদ আলীর ১২ লাখ টাকার মতো মাছের ক্ষতি হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এব্যাপারে শার্শা থানা পুলিশকে লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে। জানাগেছে, যশোরের শার্শা উপজেলার পানবুড়ি গ্রামের মৃত মান্দার গাজির ছেলে আহম্মদ আলী গাজি দীর্ঘ দিন মাছ চাষ করে আসছেন। সম্প্রতি একই গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে জাকির হোসেনের সাথে তার বিবাদ সৃষ্টি হয়। জাকির হোসেন আহম্মদ আলীকে ২/১ দিনের মধ্যে ঘেরের মাছ মেরে দেবার হুমকি দেয়। এরই জের ধরে বুধবার রাতে জাকির হোসেনের নেতৃত্বে একই গ্রামের হযরত আলীর ছেলে বিল্লাল হোসেন ও ওহাবের ছেলে শরিফুল ইসলাম শরীফ সহ ৫/৬ জন৷ দুর্বৃত্ত আহম্মদ আলীর ঘেরে বিষ ট্যাবলেট দিয়ে ঘেরের সব মাছ মেরে দেন। এর আগেও জাকির হোসেন কয়েক বার আহম্মদ আলীর ঘেরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করেছেন। জাকির হোসেন এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় আহম্মদ আলী সমাজপতিদের দ্বারেদ্বারে ঘুরেও কোন বিচার পাননি বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

এব্যাপারে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন খান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, এবিষয়ে তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD