শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:২০ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দ্বায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
শিরোনাম:
বড়াইগ্রামে জবর দখলের বিরুদ্ধে মৎস্যজীবীদের সংবাদ সম্মেলন দীর্ঘ দুই যুগ ধরে এমপিও না হওয়ায় শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারীর ক্ষোভ প্রকাশ চট্রগ্রামের আলিচিত আয়াত হত্যা দেহের দুই টুকরার খোঁজ মিলেছে সাগরপাড়ে লোহাগাড়া প্রবাসী সমিতি সৌদি আরব’র চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন মুক্তবিহঙ্গ খাগড়াছড়ি শাখায় আহবায়ক কমিটি গঠিত নৌকার প্রতীক বিক্রি ৩কোটি টাকায়? “সংবাদটির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন আওয়ামীলীগ পাইকগাছায় ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করায় আটক-২ পাইকগাছায় গ্রাম বাংলার প্রাচীন ঐতিহ্য ঢেঁকি শিল্প বিলুপ্তির পথে নড়াইলে আর্ন্তজাতিক খ্যাতি সম্পন্ন চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের পালিত কন্যা নিহার বালার মৃত্যু পাইকগাছায় ওজনে কম দেওয়ায় ডিলারকে জরিমানা
মোংলায় গ্যাসের উদগীরণস্থল পরিদর্শনে জেলা প্রশাসন, দ্রুত ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রণালয়ে চিঠি

মোংলায় গ্যাসের উদগীরণস্থল পরিদর্শনে জেলা প্রশাসন, দ্রুত ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রণালয়ে চিঠি

বায়জিদ হোসেন, মোংলাঃ
মোংলায় চিংড়ি ঘের থেকে উঠা গ্যাসের উদগীরণস্থল পরিদর্শন করেছেন বাগেরহাট জেলা প্রশাসন। সোমবার বিকেলে মিঠাখালী গ্রামের পূর্বপাড়ার বাসিন্দা দেলোয়ার শেখের চিংড়ি ঘেরের গ্যাসের উদগীরণ সরেজমিন পরিদর্শন করেন বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) খন্দকার মোঃ রেজাউল করিম ও জেলা এলজিআরডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ শরিফুজ্জামান। গ্যাসের উদগীরণস্থল পরিদর্শন করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) খন্দকার মোঃ রেজাউল করিম বলেন, সেখানে আপতত খুব বেশি একটা ভয়ের কিছু নেই, তবে যদি উদগীরণ বেড়ে যায় সেক্ষেত্রে অবশ্যই ঝুঁকি রয়েছে। তাই উদগীরণস্থল থেকে লাইন টেনে যে রান্নাবান্না করা হচ্ছে সেটি বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। কারণ এ থেকে দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। তিনি আরো বলেন, পর্যবেক্ষণে সেখানে গ্যাসের অস্তিত্ব আছে বলে মনে হয়েছে, কারণ বের হওয়া দাহ্য পদার্থে আগুন জ্বলছে। তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাথে যোগাযোগ করা হচ্ছে। পরিকল্পিতভাবে এ গ্যাসের ব্যবহারের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মঙ্গলবার সকালেই ওই মন্ত্রনালয়ে লিখিত প্রতিবেদনও পাঠানো হবে।
বাগেরহাট এলজিআরডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ শরিফুজ্জামান বলেন, ঘটনাস্থলে গ্যাসের অস্তিত্ব আছে। এখন বিশেষজ্ঞরা মাইনিং করে দেখবেন কত নিচে এবং কি পরিমাণ অর্থাৎ কত কিউসেক-মিউসেক গ্যাস রয়েছে। এবং তা লাভজনক হবে কিনা, লাভজনক হলে উত্তোলনের উদ্যোগ নিবেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। এছাড়া এ গ্যাসের উদগীরণ ফোর্স বাড়লে তাতে ঝুঁকিও থাকছে। উল্লেখ্য, প্রায় ৬ বছর ধরেই মোংলার মিঠাখালী ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডের পূর্বপাড়ার দেলোয়ার শেখের পৌনে তিন বিঘার চিংড়ি ঘের থেকে এই গ্যাসের উদগীরণ হয়ে আসছে। ৬ বছর আগে ঘের মালিক ওই জমি থেকে বালু-মাটি উত্তোলনের জন্য ৬০ ফুট গভীরতার পাইপ বসালেই সেখান থেকে গ্যাস উঠতে থাকে। তখন তা কম হলেও গত সপ্তাহ থেকে তার উদগীরণ বেড়ে গেছে। আগে দুই এক জায়গা থেকে বের হলেও এখন তা সাত আট জায়গা থেকে বের হচ্ছে। বেশি পরিমাণ বের হওয়ায় গত সোমবারে সেখান থেকে লাইন টেনে তা দিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে চুলায় রান্না করছেন দেলোয়ার পরিবার।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD