মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
বীরগঞ্জের নিজপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা ও বার্ষিক উন্নয়ন পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত আশুলিয়ায় কিশোর গ্যাং মাদক সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত-৭, থানায় একাধিক অভিযোগ আশুলিয়া সাংবাদিক সমন্বয় ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা মঞ্জুরুল আলম রাজিবকে অভিনন্দন নড়াইলে ২১৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার যুবক গ্রেপ্তার রাজারহাটে আনসার ভিডিপি’র উপজেলা সমাবেশ-২০২২ অনুষ্ঠিত ভারশোঁ ইউপির উথরাইল বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত নড়াইলে মাছের ঘেরে গাঁজা চাষ, আটক ২ নাচোলে ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে মতবিনিময় কেশবপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে ফাইনালে চাম্পিয়ান সুফলাকাটি ইউনিয়ন ফুটবল একাদশ চাটখিলে ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে ধর্ষন করে ভিডিও ধারনের অভিযোগে যুবক আটক
ভাসুরের সাথে প্রেমে জড়িয়ে স্বামীকে ডিভোর্স

ভাসুরের সাথে প্রেমে জড়িয়ে স্বামীকে ডিভোর্স

আনোয়ার হোসেন।।
হিন্দু ধর্মের বিধান মতে, ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালনের মাধ্যমে সাধনের সঙ্গে বিয়ে হয় অর্চনা মিস্ত্রীর।কিন্তু বিয়ের পরে ভাসুরের সাথে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পরেন তিনি সুধু অবৈধ সম্পর্কই না ভালোবাসার টানে ভাসুরকে নিয়ে ঢাকায় পাড়ি দেন। ভাসুরের পরামর্শে গত ২৩/১/২০১৭ইং স্বামী সাধন মিস্ত্রীকে উকিলের মাধ্যমে বিয়ে বিচ্ছেদ করে তার নোটিশ রেজিস্ট্রি করে স্বামীর কাছে পাঠিয়ে দেন।
হিন্দু ধর্মের ধর্মীয় রিতিনীতি, আচার অনুষ্ঠানকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ভাসুরের সাথে অবৈধ প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে অর্চনা মিস্ত্রী। স্বামীকে ডিভোর্স দেয়া এবং দীর্ঘ ৫বছর ধরে ডিভোর্স দেয়া স্বামীর সঙ্গে পুনরায় সংসার করার অভিযোগ উঠেছে পিরোজপুরে জেলার নেছারাবাদ(স্বরূপকাঠি) উপজেলার জলাবাড়ির মিস্ত্রী বাড়ির ছোট বৌ অর্চনা মিস্ত্রী বিরুদ্ধে। ভাসুরের সাথে অবৈধ সম্পর্কের বিষয়টা জানাজানি হতেই মিস্ত্রী বাড়িতে আশান্তি শুরু হয়। ঘটনাটি ঘিরে এলাকায় রীতিমতো চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছিলো।এ দিকে বিষয়টি মিমাংশার জন্য ইউপি মেম্বার বিপর্যয় লোকজন নিয়ে বৈঠকে বসে। পারিবারিক মন্দিরে ১লাখ টাকা প্রনামী দিয়ে সামাধান হয়। এর ভিতর ৫০ হাজার টাকা মন্দিরে ফান্ডে জমা দিলেও বাকি ৫০হাজার টাকা মেম্বর সহ শালিস গন বলতে পারবেন কোথায় আছে।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সাধন বড় ভাই সুকন্ঠ মিস্ত্রী বলেন, আমার ভাই শচিন মিস্ত্রী এবং ছোট ভাই সাধনের স্ত্রী অর্চনা মিস্ত্রী এক অপরের সাথে গোপন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি আমরা বাড়ি থেকে স্বাভাবিক ভাবে কেউ মেনে নিতে পারিনি।শচীন পরে ঢাকায় চলে যায় এর কিছু দিন পরে অর্চনাও ঢাকা গিয়ে শচীনের বাসায় ওঠে। সেখানে গিয়ে আমার ছোট ভাই সাধনকে ডিভোর্স দেয়।এবং ডিভোর্সের একটা কপি ডাক যোগে রেজিস্ট্রি করে সাধনের নামে পাঠিয়ে দেয় এবং ছোট ভাই সাধন চিঠিটা হাতে পেয়ে আমার কাছে রাখতে দেয় তখন আমি ডিভোর্সের বিষয়টি জানতে পারি।
এর কিছু দিন পরে আমার মা অসুস্থ হযে মারা যায়। তখন শচীন খবর পেয়ে অর্চনাকে নিয়ে বাড়িতে আসে। তখন এলাকার লোকজন ছিছি করতে থাকে কেউ তাদের কে বাড়ীতে উঠতে দিবেনা। তখন বিপর্যয় মেম্বারের নেতৃত্বে, বৃন্দাবন মিস্ত্রী ,রবিন্দ্রনাথ মিস্ত্রী, সহ এলাকার কিছু সুবিধাবাধি লোক মিলে বিষয়টি ধামাচাপা দেয় ১লক্ষ টাকার বিনিময়।
এ বিষয় মেম্বার বিপর্যয়ের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ভাসুরের সঙ্গে অবৈধ প্রেমের সম্পর্ক ছিলো কিনা আমি জানিনা।শচীন এবং অর্চনার বিষয় নিয়ে বৈঠকে বসেছিলাম। শচিনকে ১লক্ষ টাকা জরিমানা করেছিলাম পরে পঞ্চাশ হাজার টাকা মাপ করে দিয়েছি।
তবে সচিনের সাথে সম্পর্কের কথা অস্কিকার করেন অর্চনা মিস্ত্রী। তিনি বলেন, এটা আমার বড় ভাসুরের চক্রান্ত তাদের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ আছে। এবং বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে উকিল নোটিশের বিষয় জানতে চাইলে সে বলে । এবিষয় ওনার কাছে (ভাসুর সচিন)জিগ্যেস করলে জানতে পারবেন।

এ বিষয় সচিনের সাথে কথা হলে সেও বিষটি সম্পুর্ন অস্বীকার করে বলেন,অমার মায়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে বাড়ীতে আসলে আমার নামে দবদনাম দিয়ে মেম্বর বির্পযয় সহ বেস কয়েক জন মিলে ১লক্ষ টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে মায়ের সৎকার করতে দিবেনা । তাই আমি ৫০ হাজার টাকা দিয়েছি । তবে ছোট ভাইয়ের বৌয়ের সাথে সর্ম্পকের বিষয়টি মিথ্যা। এটা আমার বড় ভাইয়ের সাজানো নাটক।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD