শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২০ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
মুন্সীগঞ্জ‌ে টঙ্গীবাড়ী‌র ধীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক গভীর এবং কালের বিবর্তনে উত্তীর্ণঃ নৌ প্রতিমন্ত্রী কাহালু এক নারীর বেপরয়া জীবন যাপনে অতিষ্ট গ্রামবাসী কুমিল্লার দাউদকান্দিতে অটোরিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার পঞ্চগড়ে ইজিবাইকের ধাক্কায় শিশুর মৃত্যু কেশবপুরে কুকুরের কামড়ে ১৩শিশুসহ ২৫ জন আহত প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্য বাড়ছে গজারিয়া চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আলম সাহেবের শশুরের কুলখানি। নড়াইল পৌরবাসী সামান্য বৃষ্টিতে নাকাল জল জন্তনায় ধামইরহাটে ২টি ভাঙ্গা কালভার্ট দ্রুত মেরামত করা জরুরি নড়াইলে নদী ভাঙনে বিলিন হচ্ছে ঘর-বাড়ি, বিদ্যালয়-ফসলিজমি
বাগেরহাটের দুরারোগ্য ব্যাধীতে আক্রান্ত দরিদ্র হাদিয়ার পাশে রীনা তালুকদার নেত্রী মহিলা আওয়ামী লীগ

বাগেরহাটের দুরারোগ্য ব্যাধীতে আক্রান্ত দরিদ্র হাদিয়ার পাশে রীনা তালুকদার নেত্রী মহিলা আওয়ামী লীগ

শেখ সাইফুল ইসলাম কবির.সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার:বাগেরহাট:বাগেরহাটের দুরারোগ্য ব্যাধীতে আক্রান্ত হতদরিদ্র অদম্য মেধাবী হাদিয়া তাহসিনের পাশে দাড়িয়েছেন কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রীনা তালুকদার। শনিবার বিকালে তিনি মেধাবী ছাত্রীর পরিবারের কাছে যান ও অসুস্থ হাদিয়ার পাশে কিছু সময় থাকেন এবং চিকিৎসার খোজ খবর নেন। হাদিয়া তাহসিন দীর্ঘ চার বছর ধরে এসেলি রোগে আক্রান্ত হয়েছে।
রীনা তালুকদার বলেন,‘ সংবাদ কর্মীদের মাধ্যমে জানার পর খোজ খবর নিয়ে মেয়েটির সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিজেকে গুটিয়ে রাখতে পারিনি। তাই তাকে দেখতে গিয়েছিলাম। তিনি হাদিয়ার চিকিৎসার জন্য সমাজের সকল শ্রেনীর বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।
হাদিয়ার মা জেসমিন সুলতানা বলেন, ‘আমার স্বামী ২০১৫ সালে টিবি রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। আমার অনার্স পাশ করা বড় মেয়ের টিউশনিতে কোন রকমে খেয়ে না খেয়ে আমাদের সংসার চলে। চার বছর আগে প্রথমে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসকের কাছে আসি। পরে তাদের পরামর্শে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ,পরে মহাখালী বক্ষ্যব্যাধীতে এক বছর চিকিৎসা করি। পিজি হসপিটালের বর্হি বিভাগে চিকিৎসা করেও তেমন কোন ভাল ফল পাই নি। পরে ঢাকা মেডিকেলে এক বছর চিকিৎসা করেও তেমন কোন উন্নতি না হওয়ায় ধার করে ও জমি জমা বিক্রী করে ইন্ডিয়ার ভ্যালোরে সিএমসিতে হাদিয়াকে চিকিৎসা করাই। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে পরীক্ষা নিরিক্ষা করে জানান। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য অনেক অর্থের প্রয়োজন। তিনি আরও বলেন, কয়েক বছর মেয়ের চিকিৎসা চালিয়ে রাখতে নিজেদের সহায় সম্বল সব হারিয়েছি। আমার নিজের পক্ষে আর খরচ চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। আমি আমার মেয়েকে বাচাতে চাই। তিনি মেয়েকে দেখতে আসার জন্য রীনা তালুদারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সমাজের বিৃত্তবানরা যদি অসহায়দের পাশে দাড়ায় তাহলে আমাদের মতো লোকদের আর দুঃখ থাকবে না। ### ###

Please Share This Post in Your Social Media



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD