বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ০৮:০১ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
বানারীপাড়ায় দুদিন ব্যাপী বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালা সম্পন্ন বীরগঞ্জের নিজপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা ও বার্ষিক উন্নয়ন পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত আশুলিয়ায় কিশোর গ্যাং মাদক সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত-৭, থানায় একাধিক অভিযোগ আশুলিয়া সাংবাদিক সমন্বয় ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা মঞ্জুরুল আলম রাজিবকে অভিনন্দন নড়াইলে ২১৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার যুবক গ্রেপ্তার রাজারহাটে আনসার ভিডিপি’র উপজেলা সমাবেশ-২০২২ অনুষ্ঠিত ভারশোঁ ইউপির উথরাইল বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত নড়াইলে মাছের ঘেরে গাঁজা চাষ, আটক ২ নাচোলে ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে মতবিনিময় কেশবপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে ফাইনালে চাম্পিয়ান সুফলাকাটি ইউনিয়ন ফুটবল একাদশ
সুনামগঞ্জ-৪ (সদর-বিশ্বম্ভরপুর) আসনে আওয়ামীলীগ,বিএনপি ও জাতীয়পার্টির একাধিক প্রার্থী এলাকায় বইছে নির্বাচনী হাওয়া

সুনামগঞ্জ-৪ (সদর-বিশ্বম্ভরপুর) আসনে আওয়ামীলীগ,বিএনপি ও জাতীয়পার্টির একাধিক প্রার্থী এলাকায় বইছে নির্বাচনী হাওয়া

কেএম শহীদুল,সুনামগঞ্জ ।
আগামী ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে সুনামগঞ্জ-৪ (সদর -বিশ্বম্ভরপুর) আসনে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। শীতের আগমনী বার্তার মাঝে ও বর্তমানে বাংলাদেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের আলোকে নির্বাচনী বৈতরনী পাড় হয়ে ক্ষমতায় যাওয়া এবং টিকে থাকার কারনে শুরু হয়েছে জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন করার সমঝোতা ও সংলাপ। আর একারনেই গত দুটি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সরকার গঠন করলেও শরিকদল জাপাকে ছেড়ে দিতে হয় সুনামগঞ্জ-৪ আসনটি। যার ফলে তখনকার সময়ে আওয়ামীলীগ থেকে হেভিওয়েট প্রাথীরা এই আসনের টিকিট পেলেও শেষ পর্যন্ত আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার নিদের্শে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে আসনটি ছেঁড়ে দিতে হয় শরিক দল জাতীয় পার্টিকে। গত সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নির্বাচন বর্জন করায় প্রতিদ্বন্ধীতা ছাড়াই সিলেকশনে নির্বাচনী বৈতরনী পাড় হয়ে যান সুনামগঞ্জ-৪ তৎকালীন জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য এড.পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। আগামী একাদশ নির্বাচনে সরকারী দল তথা মহাজোটের প্রার্থীদের এবার বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় খালি মাঠে গোল দিতে দিবে না বিএনপির নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা এমনটাই মনে করছেন সাধারন ভোটাররা। গত সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ গ্রহণ না করায় তাদের যে মাশুল দিতে হয়েছে, তা থেকে শিক্ষা নিয়ে আগামী নির্বাচনী মাঠ ছাড়তে নারাজ বিএনপি। এবারের সংসদ নির্বাচনকে আবির্ভূত করে শোনা যাচ্ছে নানা গুঞ্জন। জাতীয় পার্টির এড. পীর ফজলুর রহমান মিছবাহ বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হলেও এবার তাকে দিতে হবে কঠিন অগ্নি পরীক্ষা। আগামী নির্বাচনে আওয়ামীলীগের হেভিওয়েট মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে কেউ ছাড় দিতে নারাজ জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী পীর ফজলুর রহমান মিসবাহকে। সুনামগঞ্জ-৪ আসনে তৎকালীন বিএনপি’র সাবেক হুইপ ফজলুল হক আসপিয়া এমপি থাকাবস্থায় এই অঞ্চলের রাস্তাঘাট সহ যোগাযোগ ব্যবস্থায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করায় এবারের নির্বাচনে পাল্টে যেতে পারে ভোটের হিসাব ।জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচিত হওয়া এমপি পীর ফজলুর রহমান মিছবাহ ক্লিন ইমেজ ও তৃনমুল পর্যায়ে গত পাচ বছরে নিবিড় বিচরণের কারনে হয়ে উঠেছেন অনেকের পছন্দের প্রার্থী। অপরদিকে তার আগেকার সময় অর্থাৎ জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত মমতাজ ইকবালের মৃত্যুর পর এই আসনের উপ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন জেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি আলহাজ¦ মতিউর রহমান। তিনি তার চারবছরে এই আসনের বিভিন্ন জায়গাতে রাস্তাঘাট,স্কুল কলেজ ও ক্লিনিক নির্মাণ সহ অনেক উন্নয়ন করেছেন। তাই তিনি এই আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন বলে জানা যায়। অপরিদকে
তৎকালীন জাতীয় পার্টির তৃনমুল পর্যায়ে গড়ে নিয়েছেন শক্ত অবস্থান। ছিনিয়ে নিতে পারেন এ আসনটি। তবে কোন ভাবেই হাল্কা করে দেখার সুযোগ নেই আওয়ামীলীগের প্রার্থীদেরকে। সদরের এ আসনটি যেকোন মুল্যে ফিরে পেতে মরিয়া নৌকার প্রার্থী। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভোটারদের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে নানা ধরনের কৌতুহল। অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেয়ার জন্য। যার হাত ধরে সাধিত হবে স্বাস্থ্যসেবা সহ যোগাযোগের নতুনদ্বার। সৃষ্টি হবে নতুন নতুন কর্মসংস্থানের ক্ষেত্র, ঘুছবে বেকারত্ব। ইতিমধ্যে সুনামগঞ্জ-৪ (সুনামগঞ্জ সদর-বিশ্বম্ভরপুর) আসনের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয় ফরম কিনেছেন সাবেক সংসদ সদস্য জেলা আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান, সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম,এনামুল কবির ইমন, তার আপন বড় ভাই পিপি খাইরুল কবির রোমেন, সাবেক সংসদ সদস্য বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ আব্দুল জহুর এর পুত্র ও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জুনেদ আহমদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রিয় সদস্য অ্যাড. কামাল হোসেন। বিএনপি’র পক্ষে মনোনয়ন কিনেছেন এবং জমাদান করেছেন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও সাবেক সংসদ সদস্য হুইপ ফজলুল হক আসপিয়া, জেলা বিএনপি’র সিনিয়ন সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন, যুক্তরাজ্যে বিএনপির উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি দানবীর আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ জেপি, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নূরুল, জেলা বিএনপি’র যুবদলের সভাপতি আবুল মনসুর মোহাম্মদ শওকত, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা বিএনপি’র সাবেক আহ্বায়ক অ্যাড. আব্দুল হক, জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন কিনেছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক এনামুজ্জামান এনাম। এদিকে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ যেকোন ধরনের আন্দোলন সংগ্রামে জেলা বিএনপির তৃণমূলের নেতাকর্মীরা বর্তমান জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুলের সাথে ঐক্যবদ্ধ থেকে দীর্ঘদিন ধরে রাপথে আন্দোলন সংগ্রাম করে কারাবন্দী হয়েছেন। তাই অধিকাংশ নেতাকর্মীরা মনে করেন নুরুল ইসলাম নুরুল বিএনপি থেকে ধানের শীষের প্রতিক ফেলে বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা খুবই বেশী বলে মনে করেন নেতাকর্মীরা। অপরদিকে জেলা বিএনপির আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী যুক্তরাজ্যে বিএনপির উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি দানবীর আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ জেপি দীর্ঘদিন ধরে খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনসহ এই আসনের অবহেলিত ও নির্যাতিত মানুষজনের পাশে থেকে তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে যথাসাধ্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এবং তিনি এই আসনে মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশা করছেন বলে জানান তার অনুসারীরা। এই আসন নিয়ে সাধারন ভোটারদের মাঝে রয়েছে কৌতুহল। তাই নির্বাচনে কে কোন দল থেকে প্রার্থী হচ্ছেন তার অপেক্ষায় আছেন সাধারন ভোটারগন। তবে সবার একটাই অভিমন দল বড় নয় তবে যে সৎ এবং র্নিলোভ ব্যক্তি হবেন এবং সাধারন মানুষের কথা ভাববেন এবং উন্নয়ন করবেন তাকেই ভোট দেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন অনেক ভোটার। তাই নির্বাচনের আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে কে হবেন এই আসনের মানুষ সেবক সেটাই এখন দেখার বিষয়। ##

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD