মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৮:১১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
বীরগঞ্জের নিজপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা ও বার্ষিক উন্নয়ন পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত আশুলিয়ায় কিশোর গ্যাং মাদক সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত-৭, থানায় একাধিক অভিযোগ আশুলিয়া সাংবাদিক সমন্বয় ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা মঞ্জুরুল আলম রাজিবকে অভিনন্দন নড়াইলে ২১৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার যুবক গ্রেপ্তার রাজারহাটে আনসার ভিডিপি’র উপজেলা সমাবেশ-২০২২ অনুষ্ঠিত ভারশোঁ ইউপির উথরাইল বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত নড়াইলে মাছের ঘেরে গাঁজা চাষ, আটক ২ নাচোলে ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে মতবিনিময় কেশবপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে ফাইনালে চাম্পিয়ান সুফলাকাটি ইউনিয়ন ফুটবল একাদশ চাটখিলে ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে ধর্ষন করে ভিডিও ধারনের অভিযোগে যুবক আটক
নওগাঁ-২ আসনে আগামীতে বিএনপি’র নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছেন খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী।

নওগাঁ-২ আসনে আগামীতে বিএনপি’র নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছেন খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী।

মাহফুজ রহমান,পত্নীতলা(নওগাঁ­)প্রতিনিধিঃ
নওগাঁ-২ (পত্নীতলা-ধামইরহাট) আসনে আগামি দিনে নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছেন বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ত্যাগী নেতা মোঃ খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী।

ওই আসনের তিন নেতাদের মধ্যে আগামী নির্বাচনে কে হচ্ছেন দলীয় প্রার্থী, এনিয়ে এখন থেকেই নির্বাচনী এলাকায় দলীয় নেতাকর্মী ও জনসাধারণের মাঝে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। বিএনপির প্রতিক ধানের শীষ-এর
প্রার্থী যেন হয় সৎ, দক্ষ, কর্মী বান্ধব এমনটাই প্রত্যাশা করেন দলীয় নেতাকর্মীরা। আগামী জাতীয় নির্বাচনে এখন পর্যন্ত তিন জন মনোনয়ন প্রত্যাশীর নাম শোনা যাচ্ছে। এর মধ্যে সাবেক এমপি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির কৃষি বিষয়ক সম্পাদক সামসুজ্জোহা খান জোহা, খালেদা জিয়া-তারেক রহমান মুক্তি পরিষদ, কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ও নওগা জেলা বিএনপির সহসভাপতি খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী ও জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম লিটন। তবে এদের মধ্যে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী পত্নীতলা উপজেলার খিরশিন গ্রামের কৃতি সন্তান, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি, এক সময়ের তুখড় ছাত্র নেতা ও ১/১১ এর নির্যাতিত নেতা খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী ইতোমধ্যেই এলাকায় ব্যাপক প্রচারণা ও অসহায় নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়িয়ে কর্মীসহ সকল ধর্মের মানুষদের মনের আসনেও নেতা হিসেবে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। নির্বাচনী এলাকা জুড়ে নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটারদের মুখে মুখে তার নাম ছড়িয়ে পড়েছে।

এদিকে গ্রহণযোগ্যতার মাপকাটিতে তৃণমূল সমর্থিত ও
জনপ্রিয় নেতাকেই দল মনোনয়ন দিবে বলে জানিয়েছেন
বিএনপি নেতা দিবর ইউপির সাবেক জনপ্রিয় চেয়ারম্যান
আনিছুর রহমান শেখ। তিনি জানান, দেশের গণতন্ত্র ও
উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় ধানের শীষ প্রতিকেই
সাধারণ ভোটাররা তাদের ভোট দিবেন বলে আশা
প্রকাশ করেন তিনি। এছাড়া জননেত্রী বেগম খালেদা
জিয়ার শক্তিশালী নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন আগামীতে
সারা বিশ্বের কাছে রোল মডেল হিসেবে উপস্থাপিত
হবে বলেও আশা করেন তিনি। আগামী নির্বাচনে যদি সুষ্ঠ ও গ্রহণযোগ্য ভোট অনুষ্ঠিত হয়। আর যদি নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরীকে কেন্দ্রীয় ভাবে দলের মনোনয়ন দেন। তাহলে, তিনি শতভাগ নিশ্চিত যে, নির্বাচনে জয়ী হবেন বলেও প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। তিনি আরো জানান, এলাকায় সার্বিক ইমেজ ও যোগ্য জনপ্রিয় তৃনমূল সমর্থিত ব্যক্তিকেই মনোনীত করবে দল। যাতে দলের বিজয় সুনিশ্চিত হয়।

অনুসন্ধানে জানা যায়, নওগাঁ-২ (পত্নীতলা-ধামইরহাট)
নির্বাচনী আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতাদের
মধ্যে অন্যতম খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী। ১শ জন বিএনপি দলীয় কর্মির মধ্যে জরিপ চালিয়ে জানা যায় যে, বর্তমানে সৎ ও গ্রহণযোগ্য নেতার তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছেন নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী। জনপ্রিয়তার তালিকায়ও তিনি শীর্ষে অবস্থান করছেন।

তিনি নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা ও ধর্মীয়
প্রতিষ্ঠানের দেখভালের দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া
তিনি নির্বাচনী এলাকায় নেতাকর্মীসহ সাধারণ
ভোটারদের নিকট গিয়েছেন বারবার। করেছেন
গণসংযোগ ও কর্মী সভা। অসহায় দলীয় নেতাকর্মীদের

পাশে দাঁড়িয়ে ইতোমধ্যে তিনি কর্মী বান্ধব নেতা
হিসেবে তৃনমুলের নেতাকর্মীদের নিকট থেকে ব্যাপক
সাড়া পাচ্ছেন। ১/১১ এর সময় তিনি দলীয় ভাবে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছিলেন এবং নির্যাতিত হয়েছিলেন।
সরেজমিনে জানা গেছে, নওগাঁ-২ নির্বাচনী এলাকার
আগামী নির্বাচনে ধানের শীষের প্রতিক কে পাচ্ছেন এ
নিয়ে এলাকায় দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে চলছে
জল্পনা-কল্পনা। তবে বিএনপির বিশিষ্ট নেতা খাজা
নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী নির্বাচনী এলাকার নেতাকর্মী ও
সাধারণ ভোটারদের খোঁজ খবর রাখছেন, তাদের বিপদে
দাঁড়াচ্ছেন পাশে। এছাড়া অসহায় রোগীদের চিকিৎসাসেবা দিয়ে মানবিকতার পরিচয় দেয়ায় সকল শ্রেণি মানুষের নিকট একটি আস্থার ঠিকানা হিসেবে পরিচিতি ঘটিয়েছেন খাজা নাজিবুল্লাহ চৌধুরী। ইতোমধ্যে তিনি এ আসন (পত্নীতলা-ধামইরহাট) গত ২০১৭ সালের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ, নগদ অর্থ বিতরণসহ সার্বিক খোঁজ খবর রেখেছেন এবং এ আসনের দরিদ্র অসুস্থ অনেক রোগীকে নিজ খরচে দিয়েছেন চিকিৎসাসেবা। এছাড়া তার নির্বাচনী এলাকায় বিভিন্ন দলীয় কর্মসূচি পালনের বিষয়ে দেখভাল করছেন।

দিচ্ছেন নানা রকম সহায়তা বলে জানিয়েছেন নজিপুর
পৌরসভার সাবেক মেয়র আনোয়ার হোসেন, পত্নীতলা
ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মাসুদ করিম সরকার, নির্মইল
ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, কৃষ্ণপুর
ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ, ধামইরহাট
উপজেলার জাহানপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদৎ
হোসেন মোল্লা, উপজেলা ছাত্রদল ও যুবদলের সাবেক
সভাপতি মন্টু চৌধুরী, ধামইরহাট উপজেলার শ্রমিক নেতা
আতাউর হোসেন সহ তৃণমূলের অনেক নেতাকর্মী।
সার্বিক বিষয়ে খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী বলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র নির্বাচনী মনোনয়ন বোর্ড নিশ্চয় সৎ,
যোগ্য, শিক্ষিত ও তারুণ্য নির্ভর ত্যাগী নেতাদের
মুল্যায়ন করবে। তিনি বলেন, ছাত্র রাজনীতির সময়
থেকেই এলাকার প্রতিটি পাড়া মহল্লায় ঘরে ঘরে গিয়ে
দলের জন্য কাজ করে চলছেন আজও অবধি। চেষ্টা করেছিনেতাকর্মীসহ সর্ব সাধারণের পাশে দাঁড়াবার জন্য। তুলে ধরেছি বিএনপির উন্নয়নের চিত্র। মনোনয়ন পাবার
ব্যাপারে শতভাগ আস্থা রেখে নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী
আরো বলেন, দল ধানের শীষ প্রতিক বিজয়ে যাকেই
যোগ্য প্রার্থী মনে করবেন, তাকেই বিজয়ী করতে জীবন
বাজি রেখে কাজ করবো ইনশাআল্লাহ।

বিশ্বস্ত ও দলীয় নির্ভরযোগ্য একাধিক সুত্র মতে জানা যায়, সাবেক সংসদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা, হামলা স্বীকার ও ঋণ খেলাপি থাকায় ব্যক্তি ইমেজ ম্লান হয়েছে তাহার।

এছাড়া নির্বাচন কমিশন তফসিলে উল্লেখ রয়েছে, ঋণ খেলাপী ও দুর্নীতিবাজদের মনোনয়ন অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন।
তাছাড়া, স্থানীয় বিএনপি পন্থী অধিকাংশ চেয়ারম্যান ও জনপ্রতিনিধিরাও ওই সাবেক সাংসদের বিরোধীতা করে আসছেন এবং নানা অনিয়ম ও অভিযোগ দিচ্ছেন।

এমতাবস্থায়, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন- ২০১৮ উপলক্ষে নির্বাচনি মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকারও শেষ হয়েছে। বর্তমানে নমিনেশন কার্ড ঘোষণা ও পাবার পালা। এলাকাবাসী ও নেতা-কর্মিরা এখন অপেক্ষায় আছেন। তবুও কে পাবেন মনোনয়ন?

তবে, নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরীর সমর্থক গোষ্ঠীর নেতা-কর্মিদের দাবি- “সৎ, যোগ্য, শিক্ষিত, নির্ভেজাল ও আদর্শবান চরিত্রের তরুণ নেতা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরী। এবার নির্বাচনে তাহার বিকল্প প্রার্থী নেই বলেও দাবি করেন।”

তারা আরো জোর দাবি ও আবেগ প্রকাশ করে জানান, নওগাঁ-২ আসনের জনগণ এখন খাজা নাজিবুল্লাহ্ চৌধুরীর অপেক্ষায় আছেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD