শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:১৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
বরিশাল জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড: তালুকদার মো: ইউনুস করোনায় আক্রান্ত বানারীপাড়া- উজিরপুরে সাংসদ রুবিনা মীরার কম্বল বিতরন লস্করপুরে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক সারাদেশে এমএলএম প্রতারণার নতুন ফাঁদ-হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা জেলা প্রশাসক ও উপজেলা প্রশাসন পরিদর্শন করলেও আশুলিয়ায় নয়নজুলি খাল উদ্ধার হয়নি কুইজ প্রতিযোগিতায় প্রথম হলেন ওসি পুত্র নিহান বানারীপাড়ায় নিষিদ্ধ বেহুন্দি জাল জমা দিয়ে জেলে পরিমলের অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট নওগাঁ জেলা শাখার সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ধামইরহাটে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ যুবক গ্রেফতার শাজাহানপুরে করণা আক্রান্তদের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত
দুর্দিন কাটিয়ে কর্মব্যস্ত সময় পার করছে জামালপুরের হস্তশিল্পীরা

দুর্দিন কাটিয়ে কর্মব্যস্ত সময় পার করছে জামালপুরের হস্তশিল্পীরা

সৈকত আহমেদ বেলাল, নিজস্ব প্রতিবেদক
দুর্দিন কাটিয়ে কর্মব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন জামালপুরের প্রায় ৬০ হাজার হস্তশিল্পী ও উদ্যোক্তা। বর্তমানে এ শিল্পের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় এ শিল্পকে ঘিরে ৫ শতাধিক ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার মাধ্যমে জেলার ৭ উপজেলায় অর্ধ লক্ষাধিক হস্তশিল্প কারিগর সৃষ্টি হয়েছে। যাদের প্রায় শতভাগই নারী। বিশেষ বিশেষ সময়ে জামালপুরের গ্রামীণ নারীদের হাতের কারুপণ্যের চাহিদা ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় শিল্পী ও উদ্যোক্তাদের দম ফেলার সময় থাকেনা। কাজের চাপে দিনরাত কাজ করায় শিল্পীদের চোখের ঘুম হারাম হয়ে যায়। তারা ব্যস্ত হয়ে উঠে রকমারি নকশী করা মেয়েদের থ্রী পিচ, শাড়ী, ভ্যানেটি ব্যাগ, পাঞ্জাবী, ফতুয়া, শপিং ব্যাগ, নকশিকাঁথা, বিছনার চাদর, ওয়ালম্যাটসহ হরেক রকম কারুপণ্য তৈরীতে। আশির দশকে কয়েকজন নারী উদ্যোক্তা স্বল্প পরিসরে ব্যবসায়িক ভাবে হস্তশিল্প‘র (কারুশিল্প) কার্যক্রম শুরু করে। বর্তমানে শিল্পটির তৈরী রকমারি পণ্য ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে দেশের গন্ডি পেরিয়ে ইউরোপ-আমেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানী হচ্ছে।
জামালপুরের গ্রামবাংলার নারীদের হাতের সেলাই করা নকশি করা পণ্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে রূপ নিয়েছে। ঘরে বসে থাকা গাঁয়ের বধূরা খোঁজে পেয়েছে বাড়তি আয়ের পথ। সংসারের পাশাপাশি হাতের কাজ করে হাজার হাজার টাকা আয় করছে। উদ্যাক্তারা তাদের হাতের তৈরী পণ্য দেশ-বিদেশে রপ্তানী করে লাখ লাখ টাকা আয় করছে। এ শিল্পকে ঘিরে শহরের বাসাবাড়ি ও অলিগলিতে গড়ে উঠেছে অসংখ্য হস্ত ও কারুশিল্প পণ্যের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। ঢাকা-চট্রগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে ব্যবসায়ীরা এসে এসব পণ্য কিনে নিয়ে যায়। নারীদের হাতের তৈরি পণ্য গ্রাহকদের নিকট সহজলভ্য হওয়ায় ঈদ, পুজা ও বৈশাখী উৎসবে এসব পণ্যের চাহিদা ব্যাপক হারে বেড়ে যায়। ফলে ঈদকে সামনে রেখে কারুশিল্পের কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করে থাকেন।
সংশ্লিষ্টরা জানান, পাঞ্জাবী ৫শ থেকে ৩ হাজার টাকা, চাদর ১২শ থেকে ২৫শ টাকা, থ্রী পিচ ৭শ থেকে ২ হাজার টাকা, শাড়ী ৯শ ৫০ থেকে ৩ হাজার টাকা, ওয়ালম্যাট ৪শ থেকে ১২শ টাকা, মহিলাদের সাইড ব্যাগ ২শ থেকে ৮শ টাকা, শপিং ব্যাগ ৩শ থেকে ৫শ টাকা এবং নকশিকাঁথা ৩ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রয় হয়। বিভিন্ন উপজেলার দরিদ্র, মধ্যবিত্ত এমনকি অল্পশিক্ষিত মহিলারা হস্তশিল্পকে সংসারের পাশাপাশি বাড়তি আয়ের মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছেন।
এ শিল্পের সাথে জড়িতরা জানান, সরকারি সহযোগিতা পেলে পোষাক শিল্পের ন্যায় এ শিল্পের মাধ্যমে উল্লেখযোগ্য বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করার উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে।।

Please Share This Post in Your Social Media



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD