মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
তিতাস গ্যাসের অবৈধ সংযোগ দিয়ে জমজমাট বাণিজ্য-প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা সুজানগরে খালেদা জিয়া সহ কেন্দ্রীয় অন্যান্য নেতাদের রোগ মুক্তি কামনা করে দোয়া পাইকগাছায় পরিকল্পিত উপায় বাগদা চিংড়ি ও ধান চাষের লক্ষে মত বিনিময় সভা। পাইকগাছায় নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনের পক্ষ থেকে পঙ্গু আঃ খালেককে সিঙ্গার সেলাই মেশিন বিতরণ পাইকগাছার কপিলমুনিতে দু’টি গ্রুপের পৃথক ভাবে রায় সাহেবের ৮৮তম তিরোধান দিবস পালিত সুজানগরে উপহারের ঘর পরিদর্শন করলেন পুলিশ সুপার সুজানগরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুলিশ সুপারের শীতবস্ত্র বিতরণ তানোরে রাজশাহী জেলা সমিতির শীতবস্ত্র বিতরণ সেলাই দক্ষতা প্রশিক্ষণ ও সেলাই মেশিন বিতরণ কার্যক্রম সভাপতি মানিক এবং সম্পাদক শাহজাহান বানারীপাড়ায় নতুনমুখের সম্মেলন অনুষ্ঠিত
কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরি করে স্বাবলম্বী শেরপুরের শিউলি

কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরি করে স্বাবলম্বী শেরপুরের শিউলি

সৈকত আহমেদ বেলাল, নিজস্ব প্রতিবেদক
ময়মনসিংহ অঞ্চলের শেরপুর জেলার পাহাড় ঘেরা সীমান্তবর্তী উপজেলা ঝিনাইগাতী। এখানকার মানুষেরা খুব কষ্টে দিনযাপন করেন। কখনও অন্যের জমি চাষ করে, কখনও কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরি করে আবার কখনও পাহাড়ের ডালপালা কেটে লাকড়ি বিক্রি করে চলে তাদের জীবন জীবিকা। ব্যাটারী চালিত রিকসা, ভ্যান চালিয়েও অনেকের জীবনের চাকা ঘুরতে থাকে শম্বুক গতিতে।
তেমনি ভাগ্যাহত এক মহিয়সী নারী শিউলি। এক সময় বেশির ভাগ অর্ধাহারে থাকা শিউলি এখন এলাকার মডেল মহিয়সী নারী।
স্বামী ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা কিনেছেন। অটোরিকশা কেনার সিংহভাগ টাকাই যোগান দিয়েছেন তিনি। নিজের সন্তানদের লেখাপড়ার খরচ, সংসারের খরচসহ তিনি সঞ্চয়ও করে চলেছেন বেশ ভাল ভাবেই।
কিভাবে ভাগ্য পরিবর্তন করলেন জানতে চাইলে শিউলি বলেন, এক সময় স্বামী নওশেদ আলী অন্যের জমিতে কৃষি কাজ করত। মাঝে মধ্যে গারো পাহাড় থেকে লাকড়ি সংগ্রহ করে নিজের ভ্যানে করে স্থানীয় বাজারে বিক্রি করত। গ্রামাঞ্চল হওয়ায় লাকড়ির অভাব তেমন একটা না থাকায় খুব কষ্টে দিন কাটত, ঠিকমতো সংসার চলত না। স্থানীয় বেসরকারি সংস্থা কারিতাস থেকে কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরির কথা শুনি। তাই দেরী না করে প্রশিক্ষণ নিয়ে কেঁচো দিয়ে জৈব সার তৈরির কাজ শুরু করি। এ জৈব সার তৈরি প্রধান উপকরণ গোবর। কিন্তু একটি মাত্র গরু থাকায় অন্যের বাড়ির গোয়াল ঘর পরিষ্কারের বিনিময়ে কেঁচো সার তৈরির উপকরণ গোবর নিয়ে আসি। প্রথম প্রথম সমস্যা হলেও এখন আর সমস্যা হচ্ছে না। মনের আনন্দেরই কাজ করে চলেছি। এই সারের কোন ক্ষতিকর কিছু না থাকায় এবং দাম তুলনামূলক কম হওয়ায় ক্রেতাও বেশি।
তিনি আরও বলেন, তার তৈরি জৈব সার নিজ জেলার সদরসহ নালিতাবাড়ী, নকলা, ঝিনাইগাতী, শ্রীবরদী ও পাশর্^বর্তী জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ফসলের মাঠে ব্যবহৃত হচ্ছে। এখন তিনি স্বাবলম্বী কৃষাণী। তার এ পরিবর্তন দেখে এলাকার অনেকেই কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছেন।
কৃষাণী জুলেখা খাতুন ও শাহিনুর বেগম বলেন, শিউলির উন্নয়ন দেখে আমরাও কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরি শুরু করেছি। বলা চলে একপ্রকার বিনা চালানে এ ব্যবসায় লাভ অনেক বেশি। বর্তমানে সার বিক্রির টাকায় সন্তানদের পড়াশোনাসহ সংসারের নানা খরচ মেটাতে পারছি। আদিবাসী নারীরাও এখন এগিয়ে আসছে জৈব সার তৈরিতে।
শিউলি‘র স্বজনরা জানায়, প্রায় একযুগ আগে নওশেদ আলীর সঙ্গে বিয়ে হয় শিউলির। স্বামীর সম্পদ বলতে ১৫ শতক বসতবাড়ি। খুব কষ্টে চলত সংসার তাদের। ২০১৩ সালে তিনি বেসরকারি সংস্থা কারিতাস ও ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ‘র মাধ্যমে কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরির ৩ দিনের প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণ শেষে বিনামূল্যে পাওয়া ১৫টি কেঁচো দিয়ে একটি সার তৈরির পাত্র রিং দিয়ে শুরু করেন। বর্তমানে তিনি ৩টি রিং ও দুইটি ইটের তৈরি হাউজে সার তৈরি করছেন। সার তৈরির পুরো প্রক্রিয়া শেষ হতে সময় লাগে প্রায় একমাস। প্রতি মাসে শিউলি সার বিক্রি করে ১০ হাজার টাকা আয় করেন।
ঝিনাইগাতী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল আওয়াল জানান, কেঁচো থেকে জৈব সার তৈরি করে শিউলি এখন স্বাবলম্বী। কৃষিতে জৈব সার ব্যবহারে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছেন। আমরা সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি। শিউলি‘র বাড়িতে গত অর্থবছরে সরকারী অর্থে ভার্মি কম্পোস্ট উৎপাদন প্রদর্শনী প্লট করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD