সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৫:১৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
রশিদ কাজীকে ইয়ারপুরের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার হিসেবে এলাকাবাসী দেখতে চায় পানছড়িতে ৩ বিজিবির উদ্যোগে আর্থিক সাহায্য ও অনুদান প্রদান নৌকার প্রার্থী মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া মেয়র নির্বাচিত জাতির পিতার মাজার জিয়ারত করেছেন পূবাইল থানা আওয়ামীলীগ নেতারা মহেশপুর উপজেলার ১২ টি ইউনিয়ন -বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সাথে জেলা বিএনপির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মহেশপুর ৫৮ বিজিবির অভিযানে ১২ কেজি রূপার গহনা জব্দ পঞ্চগড়ে নির্বাচন সুষ্ঠু অবাধ সংক্রান্তে পুলিশ সুপারের প্রেস ব্রিফিং বানারীপাড়ায় প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় বিষ খাইয়ে হত্যার চেষ্টা বখাটে আটক পঞ্চম ধাপে ৭০৭ ইউপি নির্বাচন ৫ জানুয়ারি-সাভারে রয়েছে জটিলতা তৃতীয় ধাপে নওগাঁয় দুুই উপজেলার ২২ ইউনিয়নে নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে
পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক কোটি টাকা সংস্কারে ব্যপক অনিয়ম

পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক কোটি টাকা সংস্কারে ব্যপক অনিয়ম

মেহেদি হাসান মিথুন । ।

আমাদের ছোট নদী চলে বাকে বাকে বৈশাখ
মাসে তার হাটু জল থাকে। এটা কোন আকা
বাকা নদীর চিত্র নয়। এই চিত্র পলাশবাড়ী
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের।
অথচ সরকার বিগত অর্থ বছরে শুধু মাত্র সংস্কার
মেরামত প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বরাদ্দ
দিয়েছে এক কোটি টাকা।
পুরাতন ড্রেন পুরাতন জানালা দরজা গ্রীল
নিম্ন মানের পাইপ দিয়ে পানির লাইন
মেরামত সবই পুরাতন শুধু ঘসামাজা দিয়ে রং
চকচকে করে দায়সারা গোছের কাজ করছে
স্থানীয় একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।
তথ্যানুসন্ধাসনে জানা্যায় স্বাস্থ্য প্রকৌশল
অধিদপ্তর গত ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরের
হাসপাতালটি সংস্কার ও মেরামত করার
লক্ষে এক কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করে।
টেন্ডারের মাধ্যমে কাজটি পায় ঢাকার
একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। সময়ের ব্যবধানে
তারা কোটি টাকার কাজ সামান্য লভ্যাংশ
নিয়ে স্থানীয় দুটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের
নিকট বিক্রি করে দেয়।
স্থানীয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের হাতে
কাজটি রদবদল হওয়ায় কাজে শুরু থেকেই শুরু হয়
শুভংকরের ফাঁকি।
প্রকল্পটি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রকল্পের
নিদ্ধারিত স্থানে সাইন বোর্ড প্রদর্শনের
নিয়ম থাকলে ও তা প্রদর্শন করা হয় নি।ফলে
কোন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কত টাকা ব্যয়ে
কি কাজ করছে তা নির্নয় করা সম্ভব হচ্ছে না।
সম্ভব হচ্ছে না কার্যাদেশ প্রদানের তারিখ ও
কায্য সম্পাদনের সময় কাল!কাজ সম্পাদনের
সময় সংশ্লিষ্ট বিভাগের কায্য সহকারী
উপস্থিত থেকে কাজ করার কথা থাকলে ও
কোন কার্যসহকারী ছাড়াই শ্রমিকরা নিজের
খেয়াল খুশি মত কাজ করছে! শ্রমিকদের সাথে
কথা বললে তারা জানান ১০/১৫দিন মাঝে
মাঝে একজন স্যার আসেন আবার চলে যান।
কোটি টাকা ব্যায়ে সংস্কার মেরামত কাজে
অনিয়মের বিষয়ে চানতে চাইলে স্বাস্থ্য
প্রকৌশল বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী
জানান এখন ও কাজ শেষ হয় নি।কাজের
স্থানে সাইন বোর্ড নেই কেন? জানতে চাইলে
তিনি বিষয়টি এড়িয়ে। কাজের প্রসক্কলন
চাইলে তিনি তা দিতে অস্বীকৃতি জানান।
জেলা সিভিল সার্জন জানান কাজ বাস্তবায়ন
করছে স্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ কাজ শেষে
আমরা কাজ বুঝে নেব।
উপজেলা স্বাস্থ্য পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ
ওয়াজেদ মিয়া জানান এখন ও কাজ বুঝে
নেওয়া হয় নি।
স্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী
প্রকৌশলী জানান, ভাই আমি বগুড়া থাকি
আপনার চায়ের দাওয়াত রইল। এসে চা টা
খেয়ে যাবেন।

Please Share This Post in Your Social Media



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD