মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৫:২০ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
গাজীপুরে চোলাই মদ বিক্রির সময় নারীসহ গ্রেফতার দুই অপরাধ ধামাচাপা দিতে ৩৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সাংবাদিক সম্মেলন নবীগঞ্জে বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার চালকসহ দুইজন নিহত কুসিক নির্বাচনে প্রার্থী হলেন সিআইপি এমরান খান আজ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আশুলিয়ায় কুকুরের মাংস দিয়ে বিরায়ানী বিক্রির অভিযোগে ১ জন আটক পাইকগাছা থানার আসাদুজ্জামান ও মোঃ নাসির উদ্দিন খুলনা জেলা শ্রেষ্ট কর্মকর্তা নির্বাচিত যে কোন দুর্যোগে সিপিপি’র কর্মীরা জীবন বাজী রেখে মানুষের কল্যানে কাজ করেন- এমপি- বাবু খুলনার দক্ষিঞ্চালে মৌসুমের শুরুতেই ভাইরাসে মরে যাচ্ছে চিংড়ি মাছ; দুশ্চিন্তায় চাষিরা বিরামপুরে বোরো ধান সংগ্রহে উন্মক্ত লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন
হিজড়াদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস বাণিজ্যমন্ত্রীর…!

হিজড়াদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস বাণিজ্যমন্ত্রীর…!

এস.এম.নাহিদ : বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, হিজড়ারা যাতে রাস্তাঘাটে জোর করে অর্থ আদায় বা কারো বাসা-বাড়িতে গিয়ে উৎপাত না করতে পারে সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশনা দেওয়া হবে। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের ২১তম অধিবেশনে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রশ্নোত্তর পর্বে মহিলা এমপি নুর জাহান বেগম ও কাজী রোজীর সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেননের অনুপস্থিতিতে তাঁর পক্ষে সংসদে বাণিজ্যমন্ত্রী জবাব দেন।

নুর জাহান বেগম জানতে চান, রাস্তায়, যানবাহনে হিজরা জোর করে মানুষের কাছে টাকা দাবি করে এবং মানুষকে নানাভাবে হয়রানি করে। তাদের এই দৌরাত্ম বন্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হবে কিনা? কাজী রোজি জানতে বলেন, হিজড়ারা রাস্তায়, বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাঁদা দাবি করে, বিশেষ করে কারো সন্তান জম্মালে তারা সেখানে হানা দেয় এবং চাঁদা চায়। কেউ দিতে না পারলে তারা নানা ধরনের হুমকি দেয়। একবার রাস্তায় আমি এক হিজড়াদের টাকা দিতে না চাইলে আমাকে প্রাণ নাশের হুমকি দেন। খারাপ ভাষায় কথাও বলে এবং বিশ্রী অঙ্গভঙ্গি করে।

জবাবে তোফায়েল আহমেদ বলেন, রাস্তায় হিজড়ারা টাকা দাবি করে এটা আমার জানা নেই। তবে হিজড়ারাও মানুষ, তাদের সহযোগীতার জন্য আমাদের সবাইকে হাত বাড়িয়ে দেওয়া উচিত।
এ ধরণের কোনো ঘটনা যাতে না ঘটে সে জন্য আমি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীকে বলবো যাতে তারা বিষয়টি গুরুত্বে সঙ্গে দেখেন। আইন-শঙ্খলা রক্ষাবাহিনীকে বলবো- এ ধরণের ঘটনা থেকে হিজড়াদের বিরত রাখার জন্য যাতে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হয়।
তিনি বলেন, প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সমাজে যেসব অসহায় মানুষ আছে তাদের সাহয্যের জন্য, পুনর্বাসনের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়েছে। হিজড়াদের জন্যও কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। হিজড়াদের পুনর্বাসনের জন্য সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে। প্রত্যেক সংসদকে দেখতে হবে তাদের এলাকায় কোনো হিজড়া পুনর্বাসন কর্মসূচির আওতার বাইরে থাকলে তাদেরকে কর্মসূচির আওতায় নিয়ে আসা।ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পির প্রশ্নের উত্তরে তোফায়েল আহমেদ বলেন, হিজড়াদের মূল ধারায় নিয়ে আসার জন্য সরকারের পরিকল্পনা আছে। সে অনুয়ায়ী পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে। তাদেরকে কর্মসূচির আওতায় নিয়ে আসা হলে আবার অনেকে চলে যায়। তারা যাতে চলে না যায়, সে জন্য কাউন্সিলিংয়ের ব্যবন্থা করা উচিত।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD