সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
মুন্সীগঞ্জে নদী তীর থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার জেলা শিক্ষা অফিসারের মহিশালবাড়ী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় পরিদর্শন। সিএসও’র সাথে উন্মুক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জ ইউনাইটেড কমাশির্য়াল ব্যাংক লিঃ এর শুভ উদ্ভোধন করেন পৌর মেয়র নাদের বখত্ গৌরনদীতে কলেজের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধণ গৌরনদীতে প্রশাসনের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টান পরিদর্শন আলোকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে জনপ্রিয়তার শীর্ষে সাত্তার মাষ্টার কেন্দুয়ায় ভারপ্রাপ্ত এক প্রধান শিক্ষককের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে হরিপুরে আইন শৃংখলার মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হরিপুরে কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ
বীরগঞ্জে যৌতুকের টাকা না পাওয়ায় স্ত্রীকে প্রাননাশের চেষ্টা

বীরগঞ্জে যৌতুকের টাকা না পাওয়ায় স্ত্রীকে প্রাননাশের চেষ্টা

দয়াল ডিসি রায়।।।
দিনাজপুর বীরগঞ্জের ১১ নং মরিচা ইউনিয়নের বাসুদেবপুর গ্রামে যৌতুকের টাকায় না পাওয়ায় স্ত্রীকে প্রাননাশের চেষ্টা করা হয়েছে।

গত ২০ জুলাই শুক্রবার সকাল ১০ টায় ১১ নং মরিচা ইউনিয়নের বাসুদেবপুর গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে সাইদুল ইসলাম যৌতুকের টাকায় জন্য একই ইউনিয়ের নাগরী-সাগরী গ্রামের মোবারক আলীর মেয়ে মোছা: শাপলা আক্তার (৩০) কে লোহার রড দিয়ে হত্যার চেষ্টায় উদ্দেশ্যে মাথায় বাড়ি দিতে চাইলে চোখের ডান পাশে লোহার রডের বাড়ি লেগে জখম হয় এবং লাঠি দিয়ে এলোপাথারী মারধর করে।

পরর্বতীতে শাপলা আক্তারের শাশুরি রশিদা বেগম সহ স্বামী সাইদুল ইসলাম ঘরে নিয়ে গিয়ে হত্যার উদ্দশ্যে ওড়না দিয়ে শাপলাকে গলা পেছিয়ে ধরে। তখন শাপলা চিৎকার করলে স্থানীয় বাসিন্দা ছুঁটে আসলে শাপলার স্বামী ও শাশুরি শাপলাকে ছেড়ে দেয়। জখম অবস্থায় শাপলাকে স্থানীয় বাসিন্দারা উদ্ধার করে গোলাপগঞ্জ বাজারের পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

২১ জুন শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায় আবার মারধর করে বাসা থেকে বাহির করে দেয়।পরর্বতীতে কোন উপায় না পেয়ে শাপলা আক্তার অসুস্থ শরীর নিয়ে তার বাবার বাড়িতে চলে আসে। তার বাবা তার শরীলের ক্ষত ও অসুস্থতার দেখে তাতক্ষনিক ভাবে অটো যোগে বীরগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে মহিলা ওয়ার্ডের ১৯ নং বেডে ভর্তি করে।

চিকিৎসাধীন শাপলা আক্তার কেঁদে কেঁদে বলেন,তার স্বামী প্রতিনিয়ত রাতে বেলা নেশাগ্রস্ত হয়ে বাসায় এসে আমাকে বলে যে “তোর বাপের কাছে আগে ৫০ হাজার টাকা আনে দিয়েছিস এখন আরও ১ লক্ষ টাকা আনে দিবি” টাকা আনে না দিলে তোকে জানে মারিয়া ফেলবো।

শাপলা আক্তার আরও বলেন যে, যৌতুকের টাকা বাবার
কাছ থেকে না আনতে চাইলে আমার শাশুরী ও আমার স্বামী উভয়ে মারধর করে ও প্রাননাশের চেষ্টা করে।

শাপলা আক্তারের বাবা মোবারক আলী বলেন, আমার মেয়ে অনেক বার বলছে যে তোমার জামাই ১ লক্ষ টাকা চায় যৌতুক দাবি করে। কিন্তু আমি বিয়ের সময় যৌতুক ৫০ হাজার টাকা জামাই পক্ষ দাবি করে যা আমি যৌতুক বাবত ৫০ হাজার টাকাই দিয়ে ছিলাম।কিন্তু আমার জামাই আরও ১ লক্ষ যৌতুক দাবি করে,যাহা আমার পক্ষে অসম্ভব হয়ে পরে।

স্থানীয় বাসিন্দা জানায় যে, সাইদুল ইসলাম জুয়া খেলে ও মাদক সেবন করে তার স্ত্রীর উপর নির্যাতন করে ।

এই সংবাদ লেখা শেষ পর্যন্ত থানায় কোন প্রকার অভিযোগ করা হয় নি।

Please Share This Post in Your Social Media



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD