বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৯:২৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
শৈলকুপায় জমি নিয়ে বিরোধ সংঘর্ষে ১৫ জন আহত নওগাঁর আত্রাইয়ে শেখ হাসিনার প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত বিয়ের জন্য চাপ দেয়ায় সুজানগরে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা পাইকগাছায় জোড় পূর্বক গৃহবধূকে ধর্ষনের চেষ্টা;গণ পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ পাইকগাছায় নার্সারীতে জোড় কলম তৈরীতে ব্যাস্ত সময় পার করছে শ্রমিকরা সুজানগরে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে মুন্সীগঞ্জে আ’লীগের আলোচনা সভা ও র‌্যালী পঞ্চগড়ে কাঁচা চা পাতার ন্যায্যমূল্যের দাবিতে সভা ময়মনসিংহ জেলায় শ্রেষ্ঠ এসিল্যান্ড জিন্নাত শহীদ পিংকি শেখ হাসিনা দেশে ফিরে এসেছেন বলেই দেশে গণতন্ত্র ফিরেছে-ত্রিশালে নয়ন
গোপালগঞ্জে দোকান ঘর ও জমি দখলের জন্য হামলায় কলেজ ছাত্রী গুরুতর আহত

গোপালগঞ্জে দোকান ঘর ও জমি দখলের জন্য হামলায় কলেজ ছাত্রী গুরুতর আহত

শিমুল খান।।।
নিজস্ব প্রতিবেদক, গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার সাতপাড় পশ্চিম পাড়ার গান্ধিয়াশুর বাজারে দোকান ঘর ও জমি দখলের জন্য সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়েছে এক কলেজ ছাত্রী। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮ টায় জোর পূর্বক দোকান ঘর দখলের জন্য এ হামলা করে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসী হামলায় আহত টিয়া বালা সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজের অনার্স বাংলা বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্রী।

প্রত্যৰ দর্শী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সাতপাড় পশ্চিমপাড়া বাবু কীর্ত্তনীয়ার পৈত্রিক জমি তার জামাতা মনোরঞ্জন বালার ছেলে মিন্টু বালাকে দোকান ঘর করার চুক্তিপত্র দেয়। সেই চুক্তিপত্র পাওয়ার পরে সেখানে মিন্টু বালা দোকান ঘর করে ব্যাবসা করে আসছে। সাতপাড় পশ্চিমপাড়া নকুল ভক্ত স্ত্রী স্মৃতি ভক্ত তার কথিত প্রেমিকের সূত্রে এই দোকান ঘর দাবী করে আসছে।

আহত টিয়া বালা বলেন, শুক্রবার সকালে আমি বাসার সামনে দাড়িয়ে ছিলাম। কিছু সময় পরে দেখি স্মৃতি ভক্ত দোকান ঘর মেরামত করার জন্য লোকজন নিয়ে আসে। এ সময় তপন কির্ত্তণীয়া হুকুমে স্মৃতি ভক্ত তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আমাকে মারপিট শুর্ব করে। তার সাথে জগদিশ বালার ছেলে বিবেক বালা, বিবেক বালার ছেলে চয়ন বালা, বিবেক বালার স্ত্রী লতিকা বালা, মনোবালা, সুজিৎ মৃধা, সঞ্জয় কির্ত্তনীয়া সহ ১৫ থেকে ১৭ জনের মত আসে। এ সময় তারা এলোপাথারী ভাবে আমাকে মারতে শুর্ব করে। তখন আমার চিৎকার শুনে আমার পরিবার ও বাজারের লোকজন এসে আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে বৌলতলী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ তদন্ত সাজিদুর রহমান বলেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস’লে গিয়ে তাদেরকে সরিয়ে দেই। বৌলতলী ইউপি চেয়ারম্যান ও সাতপাড় ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য দায়ীত্ব নেন।

Please Share This Post in Your Social Media






© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD