শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
তানোরে সুজনের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ মুন্সীগঞ্জ‌ে টঙ্গীবাড়ী‌র ধীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক গভীর এবং কালের বিবর্তনে উত্তীর্ণঃ নৌ প্রতিমন্ত্রী কাহালু এক নারীর বেপরয়া জীবন যাপনে অতিষ্ট গ্রামবাসী কুমিল্লার দাউদকান্দিতে অটোরিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার পঞ্চগড়ে ইজিবাইকের ধাক্কায় শিশুর মৃত্যু কেশবপুরে কুকুরের কামড়ে ১৩শিশুসহ ২৫ জন আহত প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্য বাড়ছে গজারিয়া চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আলম সাহেবের শশুরের কুলখানি। নড়াইল পৌরবাসী সামান্য বৃষ্টিতে নাকাল জল জন্তনায় ধামইরহাটে ২টি ভাঙ্গা কালভার্ট দ্রুত মেরামত করা জরুরি
রোহিঙ্গা সমস্যার সাথে চীন-রাশিয়া-ভারতের স্বার্থজড়িত

রোহিঙ্গা সমস্যার সাথে চীন-রাশিয়া-ভারতের স্বার্থজড়িত

SONY DSC

লন্ডন প্রতিনিধিঃ চলমান রোহিঙ্গা সমস্যার সাথে চীন-রাশিয়া ও ভারতের স্বার্থজড়িত বলে মনত্মব্য করেছেন লেখক, সাংবাদিক ও কলামিস্ট আবদুল গাফফার চৌধুরী। গতকাল (৮ জুন শুক্রবার) লন্ডন শিল্পকলা একাডেমিতে বাংলাদেশী ফটোসাংবাদিক ফোজিত শেখ বাবুর “পিস্নজ হেলপ ফর রোহিঙ্গা” সেস্নাগানে হু আর দ্যা নিউ ‘ভোট পিপল?’ শীর্ষক আলোক চিত্র প্রদর্শনী পূর্বক আলোচনা সভায় তিনি এই মনত্মব্য করেন।
প্রধান অতিথির বক্তেব্যে আবদুল গাফফার চৌধুরী বলেন, আসলেই এই রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে এখন আর মানুষ হার্ট হয় না! কারণ সেই ১৯৭৮ সাল থেকে একের পর এক রোহিঙ্গাদের ওপর চলে আসছে বর্বর নির্যাতন। মানুষ এটা দেখতে দেখতে অব্যসত্ম হয়ে গেছে। আজকে ফোজিত শেখ বাবু তার ছবির মাধ্যমে এমন কিছু তুলে ধরে চেষ্টা করেছেন যা আসলেই মানুষকে হার্ট করবে। এই রোহিঙ্গা সমস্যা বিশ্বের মোড়ল দেশগুলো রাশিয়া, আমেরিকা, চীন ও ইন্ডিয়া চাইলেই সমাধাণ করতে পারে। কিন’ কেনো করছেনা জানেন? মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গাদের তাড়িয়ে সেখানে (আরাকানরাজ্যে) ব্যবসা করতে চাচ্ছে তারা। এটার সাথে তাদের স্বার্থ জড়িত রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বিশ্বের নির্যাতিত সংখ্যালঘুদের মধ্যে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী অন্যতম। এর আগেও পৃথিবীর অনেক দেশে বিভিন্ন জাতি গোষ্ঠীর ওপর নির্যাতন হয়েছে কিন’ আবার সেগুলো সুষ্ঠু তদনেত্মর মাধ্যমে আনত্মর্জাতিক আদালতে বিচারও হয়েছে। কিন’ অবাক করার বিষয় এই রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর একের পর এক নির্যাতন হলেও এর কোনো বিচার হয়নি! এমনকি বিচারের কোনো উদ্যোগও আমরা দেখতে পাাচ্ছিনা।
তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যায় সবচেয়ে ড়্গতিগ্রসত্ম দেশটির নাম বাংলাদেশ। রোহিঙ্গা নির্যাতন শুরম্ন হলেই সমস্যার সৃষ্টি হয় বাংলাদেশে। মানতবতার তাগিদে বার বার বাংলাদেশ এদের আশ্রয় দিলেও দীর্ঘ মেয়াদে এদের দায়িত্ব নেওয়া বাংলাদেশের মত দেশের জন্য অসম্ভব বললেই চলে। তাই আমার আহ্বান থাকবে বিশ্বের শক্তিশালী দেশগুলো এগিয়ে আসুক রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধাণে। মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টি করম্নক। মুক্তি পাক রোহিঙ্গারা, মুক্তি পাক বাংলাদেশ। জয় হোক মানবতার।
প্রধান আলোচক তাসলিম শাকুর বলেন, আসলেই রোহিঙ্গারা এমন এক জাতি যাদের কোনো অভিভাবক নেই! যাদের অভিভাবক নেই তাদের কোনো ঠাঁইও নেই। তা না হলে আপনারা দেখুন বার বার রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন হলেও এই সমস্যা সমাধাণে কেউই শক্ত ভাবে এগিয়ে আসছেনা। যখনই রোহিঙ্গা নির্যাতন শুরম্ন হচ্ছে তখন জাতিসংঘ, ইউনিসেফ সহ বিভিন্ন সংস’া ও দেশগুলো বিবৃতি এবং প্রতিবাদের মাধ্যমে তাদের দায় সারছে। কিন’ এটির স’ায়ী সমাধাণের কথা মুখে বললেও কাজের বেলায় কেউ নেই। এই জাতি গোষ্ঠীকে বাঁচাতে এখনই বিশ্ববাসীর এগিয়ে আসতে হবে। জেতাতে হবে মানবতাকে। দমন করতে হবে মিয়ানমারকে।
ডা. রহমান জিলানীর সভাপতিত্বে ও ডা. শম্পা দেওয়ান পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরো উপসি’ত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ অল ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ডা. ফয়জুল ইসলাম সহ স’ানীয় ব্রিটেনের নাগরিক ও প্রবাসী বাংলাদেশীরা।
আলোচনা সভা শেষে ৪ দিন ব্যাপী প্রদর্শনীর ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন আবদুল গাফফার চৌধুরী সহ অতিথিরা। প্রদর্শনী শেষ হবে আগামী ১১ জুন পর্যনত্ম। পরে তারা প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন। পরিশেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সন্ধ্যায় ইফতার পার্টির আয়োজন করা হয়।
উলেস্নখ্য, এই আলোকচিত্র প্রদর্শনীর মূল উদ্দ্যেশ্য মিয়ানমারের রাখাইন অঞ্চলে বর্বরোচিত নির্যাতন, ধর্ষণ, গণহত্যা ও উচ্ছেদ অভিযানে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের বিষয়ে বিশ্ব জনমত সৃষ্টিকরা। একই দাবিতে যুক্তরাজ্যের এজ হিল ইউনিভার্সিটিতেও চলছে ফোজিত শেখ বাবুর আলোকচিত্র প্রদর্শনী। যেটা চলবে আগামী ১৪ জুন পর্যনত্ম।

Please Share This Post in Your Social Media



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD