সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিশেষ সতর্কীকরন - "নতুন বাজার পত্রিকায়" প্রকাশিত সকল সংবাদের দায়ভার সম্পুর্ন প্রতিনিধি ও লেখকের। আমরা আমাদের প্রতিনিধি ও লেখকের চিন্তা মতামতের প্রতি সম্পুর্ন শ্রদ্ধাশীল। অনেক সময় প্রকাশিত সংবাদের সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল নাও থাকতে পারে। তাই যেকোনো প্রকাশিত সংবাদের জন্য অত্র পত্রিকা দায়ী নহে। নতুন বাজার পত্রিকা- বাংলাদেশের সমস্ত জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাস ও প্রবাসে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! বিস্তারিত: ০১৭১২৯০৪৫২৬/০১৯১১১৬১৩৯৩
সংবাদ শিরোনাম :
পেশাগত দক্ষতা অর্জন ব্যতীত প্রকৃত সাফল্য অর্জন সম্ভব নয়। ইঞ্জিঃ মোঃ আতিকুর রহমান,ICT4E এ্যাম্বাসেডর,বগুড়া । পানছড়িতে নবাগত ইউএনও’র সাথে মৎস্যজীবীলীগের সৌজন্য সাক্ষাত ময়মনসিংহ নগরীকে নিরাপদ রাখতে পুলিশের রাত্রিকালীন অভিযান।। ময়মনসিংহে ওজনে কম দেওয়ায় সওদাগর ফিলিং স্টেশনকে ১লক্ষ টাকা জরিমানা।। কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জে সাদা পাথর পর্যটনকেন্দ্র ডিমলায় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গাছ কর্তন ১১ ছাত্রের বিরুদ্ধে শাস্তি ঝিনাইদহ কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট উত্তপ্ত হুমকিতে দেশীয় প্রজাতির মাছ অপরিকল্পিত কীটনাশক ও সার ব্যবহার। নওগাঁর আত্রাইয়ে ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠিত নড়াইলে ডিবি ও থানা পুলিশের অভিযানে ইয়াবা ও গাজাঁসহ গ্রেফতার ৪
সাংবাদিকদের নিয়ে চলমান ঘটনা

সাংবাদিকদের নিয়ে চলমান ঘটনা

হেলাল শেখঃ
সারাদেশ জুড়ে প্রায় ৩ হাজারেরও বেশি পত্রিকা রয়েছে, এর মধ্যে অনেক পত্রিকার মালিক- প্রকাশক/সম্পাদক ও সাংবাদিক, নিজের সম্পদ রক্ষা ও নিজের অপরাধ ঢাকতে মিডিয়াতে আসছেন, যাতে কেউ তার দিকে কোনো শক্তি প্রয়োগ না করতে পারে! একটি থানায় পুলিশের ওসি, তদন্ত ওসি ও এসআইসহ ৭০-৮০জন থাকে আর সাংবাদিক তার চেয়ে বেশি! আর এদের মধ্যে অনেকেই অপরাধ ধরতে গিয়ে নিজেরাই অপরাধ করে থাকে এটা কেমন পেশা? এটা কেমন সাংবাদিকতা?

বিশেষ করে সারা দেশে মাদক, জুয়া ও নারী দিয়ে দেহু ব্যবসা চলছে জমজমাট ভাবে। সরকার শুধু মাদক বন্ধ করলে চলবে না, এর সাথে এসব অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার ব্যবস্থা করতে হবে। এসবের টাকা জোগার করতে ছেলে, মেয়েরা বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজ (ক্রাইম) করছে। তাহলো, চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই, অপহরণ, চাঁদাবাজি, প্রতারণাসহ নানারকম অপরাধে জড়িত হচ্ছে আপনার আমার পরিবারের সদস্য। এখানেই শেষ নয়, এদের নেতৃত্ব দেয় সমাজের উচ্চ মহল থেকে, কেউ কারো কথা শুনতে চায় না। মনে হয় এটা একটা জিম্মিদশা! প্রতিটি এলাকার মানুষ দেখবেন, এলাকার সন্ত্রাসী প্রভাবশালীদের কাছে সাধারণ মানুষ একমত জিম্মি হয়ে পড়েছে। এলাকায় কারো জমি দখল, বাড়ি ঘর দখল কাজে অনেকেই জড়িত থাকলেও কেউ সাহস করে তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পারেন না বলে অনেকেই এ বিষয়ে মন্তব্য ও অভিমত প্রকাশ করেন।

পুলিশ ও সাংবাদিক যদি চায় যে এলাকায় কোনো প্রকার অপরাধমূলক কাজ করতে দেয়া হবে না, তা সম্ভব। কারণ পুলিশ ও সাংবাদিক মিলেমিশে কাজ করাটা অনেক কঠিন কাজ বলে জানান অনেকেই। আসলে পুলিশ যে টাকা বেতন ভাতা পায়, তার ৫০% যদি সাংবাদিকদের দেয়া হতো তাহলে পুলিশের সদস্যরা ঘুষ বাণিজ্য করতে পারতো না, এর মধ্যে আবার সাংবাদিকদের জন্য ৩২ধারা ডিজিটাল আইন তৈরির চেষ্টাসহ নানারকম সমস্যা সৃষ্টি করা হচ্ছে। সকল শ্রেণিপেশার মানুষের দাবি আদায়ে সাংবাদিকরা কাজ করলেও সাংবাদিকদের কল্যাণে কোনো কাজের কাজই হচ্ছে না।

বিশেষ করে এর জন্য অন্য কারো দোষ দেয়া যাবে না, সাংবাদিকদের সমস্যার কারণ সাংবাদিকরাই! বলবেন, কি ভাবে? একজন সাংবাদিকের বিপদেআপদে আর একজন সাংবাদিক পাশে থাকবে এটাইতো হওয়ার কথা তাই নয় কি? কিন্তু সারাদেশব্যপী দেখেন, সাংবাদিকরাও এখন দলীয়করণ হয়ে গেছে, কার সাথে কে প্রতিযোগিতা করবে এই নিয়ে ভাবনা, তবে ভালো কিছু নয়, একজন অন্যজনের হিংসা করা, এক সংবাদপত্রে ৪-৫ জনকে পরিচয়পত্র দিয়ে এলাকায় চাঁদাবাজি করা, এর জন্য দায়ী কারা? আমি লিখতে গেলে ইতিহাস হয়ে যাবে। কিছু লোক নিজেকে বড় বুদ্ধিমান মনে করেন, একটা অনলাইন বা পত্রিকা প্রকাশ করে বিভিন্ন ফায়দা লুটছে এমন অনেক তথ্য পাওয়া যাবে বাংলাদেশে। সব কথার এক উত্তর হবে, যদি দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হত।

উক্ত বিষয়ে হয়ত অনেকেরই খারাপ লাগছে, করার কিছু নেই, আমি সরকারকে ধন্যবাদ জানাই, যে মাদক বিরোধী অভিযান শুরু করার জন্য। অপরাধীর সাজা শাস্তি হোক আমরা সকলেই তাই চাই, কিন্তু সাধারণ মানুষকে যেন কেউ হয়রানি না করেন এটাও দেখতে হবে। মন্তব্য রিপোর্টঃ ১।

Please Share This Post in Your Social Media



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© natunbazar24.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY AMS IT BD